ক্লাবঘরে হনুমান, খাবার দিতে গিয়েই ঘটল বিপত্তি

সুভাষ বৈদ্য, কলকাতা : অনেকটা সেই হেড অফিসের বড়বাবুর মত মেজাজ ছিল তার৷ দিব্যি ছিলেন খোশ মেজাজে, কার্ণিশ খানি চেপে৷ একলা বসে ঝিম্‌ঝিমিয়ে হঠাৎ গেলেন ক্ষেপে !

এখানে বড়বাবু কে জানেন? এক মহা গুণধর হনুমান৷ দিব্যি ছিল ক্লাব ঘরে বসে৷ কোনও বাঁদরামো করছিল না প্রথম দিকে৷ কিন্তু লোক জন দেখেই কেমন যেন মাথা বিগড়ে গেল তার!

সল্টলেকের সুকান্ত নগরে আজ সকালে একটি ক্লাব ঘরে একটি হনুমান বসে থাকতে দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা৷ হনুমানের খবর ছড়িয়ে পড়তেই সাধারণ মানুষ ভীড় করেন৷ তাকে দেওয়া হয় খাবার৷ দেওয়া জল৷ তবে খাবার দিতে গিয়েই ঘটে বিপত্তি৷ একজনকে কামড়ে দেয় হনুমানটি৷ এরপরেই এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক৷

- Advertisement -

খবর দেওয়া হয় বনদফতরকে৷ হনুমানটিকে ইঞ্জেকশন দিয়ে বেহুঁশ করা হয় প্রথমে৷ কিন্তু এই ঘুমপাড়ানি ইঞ্জেকশন দিতে বেগ পেতে হয় বনদফতরকে৷ পরে অনেক কসরত করে তাকে কাবু করা হয়৷ তারপর খাঁচা বন্দী করে নিয়ে যায় হনুমানটিকে৷

বনদফতর আধিকারিকরা জানিয়েছেন চিকিৎসা চলবে হনুমানটির৷ তবে সে আপাতত শান্তই রয়েছে বলে জানিয়েছেন বনদফতরের আধিকারিকরা৷

Advertisement ---
---
-----