বিখ্যাত অভিনেতার বিরুদ্ধে উঠল যৌন হেনস্থায় অভিযোগ!

লস এঞ্জেল : নিশানায় এবার অস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা মর্গ্যান ফ্রিম্যান। অভিযোগ যৌন হেনস্থা। তবে কোনও অভিনেত্রীর নয়! সম্প্রতি এক প্রোডাকশন অ্যাসিসটেন্ট অভিনেতার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ আনেন। তাঁর দাবি, অনেকবার বারণ করা সত্ত্বেও, মিস্টার ফ্রিম্যান তাঁকে অশালীন ভাবে ছুঁতেন৷ আপত্তি জানাবার পরও, মর্গ্যান তাঁর এই ব্যবহার থেকে বিরত হন না।

২০১৭ সালের ফিল্ম ‘গোয়িং ইন স্টাইল’ ছবির প্রোডাকশন টিমে ছিলেন সেই মহিলা৷ সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে মহিলাটি জানান, “শ্যুটিং ফ্লোরে মর্গ্যানের দ্বারা তাঁকে প্রায় রোজই কোন না কোন ভাবে হয়রানির শিকার হতে হয়েছে৷ কখনও অভিনেতা তাঁকে তাঁর ফিগার নিয়ে টিজ করতেন, কখনও তাঁর পোষাক নিয়ে কুমন্তব্য করতেন৷ এমনকি তাঁর কোমড়েও বহুবার অনুচিতভাবে হাত দিয়েছেন”৷

আরও পড়ুন: OMG! শ্রাবন্তীর নাম হাতে লিখেছেন এই অভিনেতা

এই প্রসঙ্গে একদিনের একটি ঘটনার ব্যাখা করে মহিলাটি বলেন, “উনি একবার আমার স্কার্টও তোলার চেষ্টা করেছিলেন৷ আমি অন্তর্বাস পরে আছি কিনা এটাও জিজ্ঞেস করেন৷ সেই সময় আরেকজন অভিনেতা অ্যালান আর্কিন সেখানে উপস্থিত ছিলেন৷ তিনি চিৎকার করে ধমক দিতেই, মর্গ্যান চমকে যান৷ ভয় পেয়ে কী বলবেন বুঝে উঠতে পারছিলেন না৷”

মহিলার দাবি, আগেও একজন মহিলা ফ্রিম্যানের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন৷ ‘নাও ইউ সি মি’ ছবির প্রোডাকশন স্টাফের সিনিয়র সদস্য ছিলেন তিনি৷ তাঁকেও বেশ কয়েকবার এই অভিনেতার হাতে হেনস্থা হতে হয়৷

আরও পড়ুন:  গানে গানে গাঢ় হল উমা-বিল্টুর বন্ধুত্ব

সেটে উপস্থিত বহু মহিলাদেরই বিভিন্ন রকমের মন্তব্য করে গিয়েছেন বহুবার৷ তাঁর কথায়, “মর্গ্যান সেটে থাকলে, আমরা মেয়েরা, কখনও কোন টাইট জামা বা রিভিলিং টপ পরতাম না৷ যেকোন জামা যা আমার শরীরের কার্ভকে আরও স্পষ্ট করবে, তেমন কোনও আউটফিটে আমরা ফ্লোরে আসতাম না৷” একাধিক মহিলার অভিযোগ, মর্গ্যান মহিলাদের বক্ষঃস্থলে দীর্ঘক্ষণ তাঁকিয়ে থাকতেন৷

অবশ্য এ ধরণের বহু অভিযোগের পর প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়েছেন মর্গ্যান। তিনি বলেন, “আমার জন্য যদি কেউ অপমানিত হয়ে থাকেন, অস্বস্থিকর অনুভব করে থাকেন তাহলে আমি ক্ষমা চাইছি৷ আমি কখনও চাইনি কেউ আমার আচরণে এভাবে বিরক্ত হোক৷ তবে যাঁরা যাঁরা আমার সঙ্গে কাজ করেছে, তাঁরা জানেন আমি এরম অপরাধ করতে পারিনা৷ ইচ্ছাকৃতভাবে এ ধরণের আচরণে আমি অভ্যস্ত নই৷”

Advertisement
----
-----