দিনটা ‘গুড ডে’ করতে হলে মেনে চলুন ৩টি টিপস্

সকালে উঠে দিনটা খারাপ কিছু দিয়ে শুরু হলে মনে হয় নিশ্চয়, কার মুখ দেখে উঠেছিলেন! কিন্তু সেসব ভাবনাকে পেছনে ফেলে রোজ একটা সুন্দর দিনের সূচণা করতে পারেন আপনি৷ কারণ এর টোটকা রয়েছে আপনার হাতের মুঠোতেই৷ ভাবছেন কিভাবে? নিচে রইল তেমনই কিছু টিপস্-

১) ‘আরলি টু বেড অ্যান্ড আপলি টু রাইজ…’, এই সমগ্র কথাটা কে না জানে৷ কিন্তু কতজন তা মানে বলুন তো? আপনি যদি আপনার দিনের শুরুটা ভালো করতে চান তাহলে কিন্তু এটা মানতেই হবে৷ কেন জানেন? ভোরে আবহাওয়া থাকে একদম শান্ত-শীতল-টাটকা৷ সে সময় যদি একটু খালি পায়ে সবুজ ঘাসে, কিমবা একটু মেডিটেশন, অথবা খোলা হাওয়ায় দাঁড়িয়ে ভালো করে শ্বাস-প্রশ্বাস নেওয়া, কোনও একটা যদি নিয়ম করে করতে পারেন তাহলে কিন্তু লাভ আপনারই৷

আরও পড়ুন: ভোরের সহবাসে সুস্থ থাকবে হৃদয়

- Advertisement -

২) ফ্রি-হ্যান্ড এক্সারসাইজ করেন? না করলে একটা দুটো সহজ এক্সারসাইজ দিয়ে শুরু করতে পারেন৷ তবে অবশ্য ভোরবেলা৷ আর যদি রোজ তা না ভালো লাগে, তাহলে মর্নিং ওয়াকের পরিবর্তে সাইকেল নিয়ে বেরিয়ে পড়তে পারেন ছোট্ট ট্যুরে৷ নিজের এলাকাকেই সাইকেলে চেপে এক্সপ্লোর করতে থাকুন৷ এক ঢিলে আপনার দুই পাখিই মারা হয়ে যাবে৷ ভোরে ওঠা সঙ্গে সাইক্লিং করে এক্সারসাইজ সারা, চাইলে একফাঁকে সকালের বাজারটা সেরেই ঢুকতে পারেন!

আরও পড়ুন: সকালে মধু খাওয়ার উপকারিতা জানেন?

৩) শরীরের সঙ্গে সঙ্গে মনেরও তো যত্ন নিতে হবে৷ তাই ভোরে উঠে লিখে ফেলুন এমন তিনটি কারণ, যার জন্য আপনি কারও কাছে কৃতজ্ঞ, অথবা কোনও পজিটিভ ঘটনা, অথবা এমন কিছু যা আপনি করতে চান, আপনার স্বপ্ন৷ দেখবেন সারাদিন আপনাকে সেই স্বপ্নই জাগিয়ে রাখবে৷ এভাবে টানা চলতে থাকলে আপনার মধ্যে পজিটিভ চিন্তা-ভাবনা করার ক্ষমতা বহুগুণ বেড়ে যাবে, যার ফলে আপনার দীর্ঘমেয়াদী লাভ হতে পারে৷ এর পাশাপাশি স্বাদবদল করতে চাইলে হালকা গানও শুনতে পারেন৷

Advertisement ---
---
-----