অসলো: ২০১৭ সালের ৬ ডিসেম্বর ফিনল্যান্ডের স্বাধীনতা দিবসের শতবর্ষ পূর্ণ হবে। সেই দিন পর্বতহীন দেশ ফিনল্যান্ডকে একটা আস্ত পর্বত উপহার দিতে চলেছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র নরওয়ে। নরওয়ে ও ফিনল্যান্ডের উত্তর দিকের সীমারেখা মাত্র ৪৯০ ফুট এবং পূর্বের রেখা মাত্র ৬৫০ ফুট এদিক-ওদিক করলেই ফিনল্যান্ড পেয়ে যাবে বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গগুলোর একটি। 

দুই দেশের সীমানায় অবস্থিত 'হালটি' পর্বতটি ফিনল্যান্ডকে দিতে ইচ্ছুক নরওয়ে। পর্বতটি উচ্চতায় সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে প্রায় সাড়ে চার হাজার উঁচু।  প্রতিবেশীকে পর্বতটি উপহার দিয়ে দিলে নরওয়ের ০.০১৫ বর্গ মাইল জায়গা চলে যাবে ফিনল্যান্ডের দখলে। নরওয়েতে অবস্থিত ২০০টি পর্বতের তালিকায় ঠাঁই পায়নি এই 'হালটি' পর্বত। সেই কারণে জমি হাতছাড়া হওয়ার জন্য বিন্দুমাত্র চিন্তিত নন নরওয়েবাসী। উল্টে প্রতিবেশী পর্বতহীন রাষ্ট্রকে ইতিহাস সৃষ্টি করার মতো উপহার দিয়ে তাঁরা গর্বিত হতে ইচ্ছুক। 

ঐতিহাসিক উপহার দেওয়ার বিষয়ে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে একটি প্রচারমূলক কর্মসূচির আয়োজন করেছিলেন নরওয়ের অবসরপ্রাপ্ত ভূ-তাত্ত্বিক জিওর হারসন। ৭৫ বছরের এই নরওয়েবাসীর মতে, "নরওয়ের পক্ষ থেকে প্রতিবেশী বন্ধু রাষ্ট্রকে এ উপহারটি দেওয়া হলে দেশের সাধারণ মানুষ অনেক খুশি হবেন। এতে দুটো দেশের কোনটিতেই এক বর্গ কিলোমিটারেরও লাভ-লোকসান ঘটবে না।" সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের প্রচারে ইতিবাচক সাড়া মিলেছে নরওয়ের সাধারণ মানুষদের থেকে। সকলেই ইতিহাস সৃষ্টির জন্য প্রবল আগ্রহী। ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে দেশের বিদেশমন্ত্রকের কাছে প্রয়োজনীয় চিঠি দিয়েছেন জিওর হারসন। যদিও, পর্বত হস্তান্তরের বিষয়ে এখনও সরকারিভাবে কিছু জানানো হয়নি।

----
--