‘কংগ্রেসেই আছি’, প্রমাণ করতে জেলা জুড়ে বৈঠক শুরু নূরের!

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ‘আমি কংগ্রেসেই আছি কংগ্রেসেই থাকব’- তৃণমূলে যোগদানের জল্পনা উড়িয়ে কয়েকদিন আগেই এই দাবি করেছিলেন মালদহের সাংসদ মৌসম বেনজির নূর৷ এবার তা প্রমাণ করতে মরিয়া হয়ে উঠলেন তিনি৷ তৃণমূল নেতা শুভেন্দু অধিকারীর মালদহ সফরের পর থেকেই এলাকায় মাটি কামড়ে পড়ে রয়েছেন মৌসম৷ কর্মীদের বিশ্বাস অটুট রাখতে ব্লকে ব্লকে এখন বৈঠক করছেন তিনি৷

সাধারণত স্বল্পভাষী৷ মিডিয়ার সামনেও মুখ খোলেন কম৷ তাই রাজ্য-রাজনীতিতে তাঁকে ঘিরে খুব একটা চর্চা হয় না৷ কিন্তু হঠাৎ করেই প্রয়াত কংগ্রেস নেতা গণিখান চৌধুরীর ভাগ্নিকে নিয়ে রাজনীতির বাজারে হইচই পড়ে গিয়েছে৷ জল্পনা চলছে তিনি নাকি তৃণমূলে যোগ গিতে পারেন৷

জল্পনার সূত্রপাত, মঙ্গলবার মালদহে শুভেন্দু অধিকারীর এক বক্তব্যকে ঘিরে৷ তিনি বলেছিলেন, মুর্শিদাবাদের মতো মালদহেও কংগ্রেসের ঘর ভাঙতে চলেছে। এই জেলার কংগ্রেসের অনেক রাঘববোয়াল তৃণমূলে যোগ দেওয়ার জন্য তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। তবে কারা এই তালিকায় রয়েছেন সেবিষয়ে কিছু বলেননি।

- Advertisement -

শুভেন্দুবাবুর এই মন্তব্যের পর জেলার রাজনৈতিক মহলে শুরু হয় জোর গুঞ্জন। প্রশ্ন ওঠে, তবে কি জেলার দুই কংগ্রেস সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরি ও মৌসম বেনজির নূর তৃণমূলে যোগ দিতে চলেছেন? গুঞ্জনকে আরও উসকে দেয় কয়েকটি সংবাদমাধ্যম। তবে সব জল্পনার জবাব দেন জেলা কংগ্রেস সভানেত্রী মৌসম নুর। তিনি সাফ জানিয়ে দেন এসব কথা ভিত্তিহীন৷ এসব অপপ্রচার করা হচ্ছে৷

এই জল্পনা শুরু হওয়ার পর থেকেই স্থানীয় বিধায়কদের নিয়ে ব্লকে ব্লকে কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করা শুরু করে দিয়েছেন মৌসম৷ যদিও এর মধ্যে আলাদা করে কিছু খোঁজার চেষ্টা বৃথা বলেই মনে করেন মৌসম৷ তাঁর কথায়, ‘এখানে কে এসে কী বলল তানিয়ে আমি ভাবি না৷ প্রত্যেকটা নির্বাচনের পরই আমরা ব্লকস্তরে বৈঠক করি৷ এবারও পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর আমরা ব্লকে ব্লকে বৈঠক করছি৷’

মৌসম বলেন, ‘আমি সারাবছর মালদহের মানুষের সঙ্গে থাকি৷ এখানকার কংগ্রেস কর্মীদের সঙ্গে থাকি৷ তাই আলাদা করে আমার নিজেকে ওদের কাছে প্রমাণ করার কিছু নেই৷’

তবে মালদহ কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি হলেও, অধীর গড়ে শুভেন্দুর জয়জয়কার দেখার পর মৌসমকেও একটু চিন্তাভাবনা করতেই হচ্ছে। সেইজন্যই কী নিশ্চিন্তে ঘরে বসে থাকতে পারছেন না তিনি? ১৯-এ একচুলও জমি না ছাড়তেই কি এই মহড়া? সেই প্রশ্নই উঠছে রাজনৈতিক মহলে।

Advertisement ---
-----