স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: লোকসভা নির্বাচনের আগেই বিজেপিতে তৃণমূলের সাংসদের যোগদান কী শুধু সময়ের অপেক্ষো৷ বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের বক্তব্য, ‘‘অনেক কিছুই হতে পারে৷ অনেকেই আসতে পারেন?’’ মুকুলের বিস্ফোরক দাবি, ‘‘আমি তো সবাইকেই বলেছি৷ আমি শোভন চ্যাটার্জিকে বলেছি, ববি বাকিমকে বলেছি চলে আয় আমাদের দলে৷ তাতে কী হয়েছে? বৈশাখী (বন্দ্যোপাধ্যায়)কেও বলেছি৷ অনেককেই বলেছি৷’’

আরও পড়ুন- ‘দেশদ্রোহী’ কানহাইয়া কুমার গেলেও শহিদকে শ্রদ্ধা জানাতে অনুপস্থিত এনডিএ নেতারা

তৃণমূল নির্বাচন কমিটি তৈরি করেছে ১২ জনের৷ মুকুলের মতে, ‘‘১২ জন বা ৫৬ জনে কিছু যায় আসে না৷ ওরা কেউ কাউকে বিশ্বাস করে না৷ পার্থ (পার্থ চট্টোপাধ্যায়) বক্সিকে (সুব্রত বক্সি), আবার বক্সি বিশ্বাস করে না পার্থকে৷ ওরা এখন আতঙ্কে ভুগছে সিদ্ধান্তে কে নেবে না নেবে৷ কিন্তু সিদ্ধান্ত নেওয়ার তো একটাই মালিক৷ ওই সব কমিটির মূল্য আছে নাকি৷ আমিতো দীর্ঘদিন ওই দল করে এসেছি৷’’

আরও পড়ুন- বিজেপি কর্মীর বাড়িতে হামলায় অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

বিজেপির প্রার্থী কে কে হতে পারে প্রশ্নের জবাবে মুকুল বলেন, ‘‘বিজেপির প্রার্থী ঠিক করে দলের কেন্দ্রীয় সংসদীয় বোর্ড৷ এখানে একটি মানুষ সিদ্ধান্ত নিতে পারে না৷ ওই বোর্ডই রাজ্যের ৪২টি কেন্দ্রে প্রার্থী ঠিক করবে৷ রাজ্য পার্টিতে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি৷ সুপারিশ যাচ্ছে না৷ সুপারিশ পাঠাতেও বারণ করেছে৷’’

ববি, শোভন, বৈশাখী সকলেই বিজেপিতে আসতে বলেছি: মুকুল রায়

ববি, শোভন, বৈশাখী সকলেই বিজেপিতে আসতে বলেছি: মুকুল রায়

Kolkata24x7 यांनी वर पोस्ट केले सोमवार, ४ मार्च, २०१९

মুকুলের আরও বক্তব্য, ‘‘সৌমিত্র খানের ৯ জানুয়ারি বিজেপিতে যোগদান করেছে৷ কিন্তু ১০ জানুয়ারি ওপর বিরুদ্ধে ৪টে মামলা৷ অনুপম হাজরা আমার বাড়িতে বসে আছে৷ বিজেপিতে যোগ দিচ্ছে না কারণ মামলা দিয়ে দেবে এই ভয়ে৷ নেপাল মাহাতো, মুনমুন সেন, সন্ধ্যা রায় বিজেপিতে যোগ দিতে পারে৷ রাইমা সেন বিজেপিতে যোগ দিতে পারে৷ কোচবিহারের সাংসদ পার্থপ্রতীম রায় যোগ দিতে পারে৷’’

মুকুল বলেছেন, ‘‘(তৃণমূল কংগ্রেস) বলছে বিজেপি দাঙ্গা ছড়ায়৷ কোথায় দাঙ্গা হয়েছে বলুন তো? কোথাও একটা দাঙ্গা হয়েছে? এদিকে মিথ্যে মামলা দেওয়া হচ্ছে বিজেপি নেতাদের নামে৷ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের নামে মিথ্যা মামলা দিচ্ছে৷ দিলীপ যে গাড়িতে গিয়েছেন, সেই গাড়িতে পুলিশ লেখা থাকা স্বাভাবিক৷ কারণ উনি কেন্দ্রীয় এজেন্সির সুরক্ষা পান৷’’