২১ শে’র মঞ্চেই তৃণমূলের ঘর ভাঙবেন মুকুল

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: একুশে জুলাইয়ের মঞ্চেই তৃণমূল কংগ্রেস ভাঙবে, ২৪ ঘন্টা আগেই হুশিয়ারি দিল বিজেপি৷ শনিবার ধর্মতলায় ‘২১ শে’র মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন তাঁর ভাষণ শেষ করবেন, তারপরেই বালুরঘাটে নিজের খেলা শুরু করবেন মুকুল রায়৷

পঞ্চাশ হাজার, হ্যাঁ পঞ্চাশ হাজার রাজনৈতিক কর্মীকে বিজেপিতে যোগদান করিয়ে ২১ জুলাইয়ে ‘অন্য মঞ্চ’ থেকে তৃণমূল ভাঙতে চান মুকুল৷ কারণ পঞ্চাশ হাজার রাজনৈতিক কর্মীদের সিংহভাগই আসবেন শাসকদল থেকে৷

যা খবর, দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটের গুলমোহর থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ২১ জুলাইয়ের বক্তব্য শুনবেন মুকুল৷ তৃণমূল থেকে দূরত্ব বাড়িয়ে দুটি ২১ জুলাই একাই কাটিয়েছিলেন তিনি৷ তবে গত বছর নভেম্বর মাসের ৩ তারিখে বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার পর এই প্রথম ২১ জুলাই দেখবেন মুকুল৷ স্বাভাবিকভাবেই ২১ জুলাই তৃণমূল নেত্রীকে পালটা চাপে ফেলার ‘Blue Print’ অনেক আগে থেকেই তৈরি করে রেখেছেন তৃণমূলের প্রাক্তন ‘Second in Command.’

- Advertisement -

তবে মুকুলের এই মহাযোগদানপর্বে তিনি একা নন, তাঁর সঙ্গে থাকছেন রাজ্যে বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়৷ পার্টি সূত্রে খবর, তৃণমূল, কংগ্রেস এবং সিপিএম থেকে এলাকা ভিত্তিক উল্লেখযোগ্য নাম ছাড়াও বিজেপি যোগ দেবেন হাজার হাজার ‘তৃণমূলস্তরের’ কর্মী৷

তবে শুধু মুকুল এবং কৈলাস একাই নয়, সভায় যোগ দেবেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষও৷ শনিবারই মালদায় একটি জনসভায় যোগদানপর্বের অনুষ্ঠান শেষ করে বালুরঘাটে পৌঁছবেন দিলীপ৷ বিজেপি সূত্রে খবর মুর্শিদাবাদের কংগ্রেস নেতা, অধীর চৌধুরী ঘনিষ্ট নীলাঞ্জন রায় শনিবারই বিজেপি যাচ্ছেন৷ সঙ্গে আনবেন প্রায় ১০০০ কংগ্রেস কর্মীকে৷ তবে এরকম আরও অনেক চমক আছে৷

এদিকে বিজেপির দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা সম্পাদক শুভেন্দু সরকার ওরফে বুলা এখন জেলে৷ একটি মামলায় তিনি এখন বিচারাধীন বন্দী৷ বিজেপির অভিযোগ তাঁকে রাজনৈতিক চক্রান্তে ফাঁসিয়েছে তৃণমূল৷ মুকুল রায় শুভেন্দুর বাড়িতে গিয়েছিলেন৷

Advertisement ---
---
-----