হিন্দু-মন্দির গড়তে মুসলিম ভাইয়েরা দিলেন অর্থ

স্টাফ রিপোর্টার, বহরমপুর: এ বাংলা নিরপেক্ষতার৷ সর্বধর্ম সমন্বয়ই বাংলার এক এবং একমাত্র লক্ষ্য৷ কিন্তু মাঝেমধ্যে ধর্ম নিয়ে একদল মানুষের রাজনীতি সে বার্তা ভুলিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে৷ যদিও শেষ অবধি জয় মানুষেরই হয়৷ ভালোবাসার, আন্তরিকতার হয়৷ যেমনটা দেখা গেল মুর্শিদাবাদের সুতিতে৷

হিন্দুদের মন্দির নির্মাণে এগিয়ে এলেন স্থানীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ৷ মন্দির গড়তে দান পাত্রে রাখলেন পনেরো লক্ষ টাকা৷ এ এক অনন্য সম্প্রীতির নজির গড়লেন মুর্শিদাবাদের সুতি থানার বামুহা গ্রামের মানুষ৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: পরমানু কর্মসূচি জারি উত্তর কোরিয়ায়: রাষ্ট্রসংঘ

প্রসঙ্গত, এলাকার দুর্গাকালী মন্দির নির্মাণের কাজ বেশ কিছুদিন হল শুরু হয়েছে৷ আর সেই মন্দির নির্মাণ খাতে ১৫ লক্ষ টাকা অনুদান দিলেন এক মুসলিম শিল্পপতি৷ সারা দেশ জুড়ে যেখানে ধর্ম নিয়ে রাজনীতি চরম পর্যায়ে, সেখানে হিন্দুদের মন্দির নির্মানে মুসলিম শিল্পপতির এগিয়ে আসা বুঝিয়ে দেয় দেশটা এখনও দ্বেষে ভরে যায়নি৷

এখনও বন্ধুতা শব্দটা অর্থহীন নয়৷ এখনও মানুষ বিশ্বাস করে ধর্ম একটাই, মানব ধর্ম৷ মুর্শিদাবাদের সুতি থানার বামুহা গ্রামে এই মন্দির নির্মানের কাজ চলছে। এলাকার মানুষের সহযোগিতায় চলছে কাজ। কিন্তু মাঝে একটা সময় অর্থের অভাবে কাজ এগোনো যাচ্ছিল না৷

আরও পড়ুন: প্রতিবাদ করে প্রহৃত শিক্ষক

ঠিক তখনই এলাকার মুসলিমরা মন্দির নির্মাণের জন্য পনেরো লক্ষ টাকা দেন৷ মন্দির নির্মানের কাজে সাহায্যের হাত বাড়িতে দিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারাও৷ তবে সেখানে শুধু হিন্দু সম্প্রদায় নেই৷ রয়েছেন হিন্দু-মুসলিম সমস্ত ধর্মের মানুষই৷

শনিবার এই নির্মীয়মান মন্দিরে এক সম্প্রীতির আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এই সভায় উপস্থিত ছিলেন সুতির প্রাক্তন বিধায়ক ইমানি বিশ্বাস, সুতি থানার ওসি বিশ্ববন্ধু চট্টরাজ সহ এলাকার বিশিষ্ট জনেরা।

অন্যদিকে, এদিন শিল্পপতি জাহিরুল ইসলাম জানান, ধর্ম নিয়ে যখন সারা পৃথিবী জুড়ে মানুষ হানাহানি-হিংসাত্মক হয়ে পড়েছে৷ ঠিক তখনই এই ঘটনার মাধ্যমে শান্তি ও সম্প্রীতির বার্তা দেওয়া হল৷ ধর্ম নিয়ে ভেদাভেদ করে মানুষ কোনও দিনও এগোতে পারেনি, আগামী দিনেও পারবে না৷ তাই সর্বক্ষেত্রে, সর্বস্তরে সকল ধর্মের মানুষকে নিয়ে এগিয়ে যেতেই তাঁদের এই উদ্যোগ।

আরও পড়ুন: ফারুক আবদুল্লার বাড়িতে হামলা! নিহত সন্দেহভাজন

Advertisement ---
---
-----