‘মুসলিমরা বিদ্যুৎ চুরি করে, তাই দেশে বিদ্যুতের আকাল’

লখনউ: ফের অস্বস্তিতে বিজেপি৷ মুসলিমদের নিয়ে চরম অপমানজনক মন্তব্য করলেন উত্তর প্রদেশের বিজেপি বিধায়ক সঞ্জয় গুপ্তা। উত্তর প্রদেশের কৌশাম্বি জেলার চায়ল বিধানসভার বিধায়ক সঞ্জয় গুপ্তা বলেন যে ৯০% মুসলিম বিদ্যুৎ চুরি করে।

তাঁর মতে হুকিং করে চুরি করা হয় বিদ্যুৎ৷ বেশিরভাগ মুসলিম পাড়াতে এই প্রবণতা দেখা যায়৷ অথচ তাদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয় না৷ হয়রানি পোহাতে হয় শুধু হিন্দুদের৷ তাদের বিরুদ্ধেই যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়৷ শাস্তির বিধানও হিন্দুদের জন্যই বরাদ্দ৷ এই ব্যবস্থার বদল দরকার৷

আরও পড়ুন: পুরীতে মিমি, কিন্তু সঙ্গে মানুষটি কে জানেন?

- Advertisement -

সম্প্রতি বিধায়ক সঞ্জয় গুপ্তার একটি অডিও ক্লিপ প্রকাশিত হয়েছে৷ সেখানে তাঁকে বিদ্যুৎ দফতরের এক ইঞ্জিনিয়ার অভিনাশ সিং-এর সঙ্গে কথা বলতে শোনা গিয়েছে৷ অভিনাশ সিংকে রীতিমতো ধমক দিতে শোনা গিয়েছে ওই বিধায়ককে৷

এই অডিও ক্লিপটি অবিনাশ সিং-ই ছড়িয়ে দেয় সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ মুহুর্তে সেটা ভাইরাল হয়ে যায়৷ এই অডিওতে বিধায়ক বলেন যে ৯০% মুসলিম বিদ্যুৎ চুরি করে, তাই হিন্দুদের ছেড়ে মুসলিমদের ধরা হোক।
এই অডিওতে বিধায়ককে হুমকির সুরে বলতে শোনা গিয়েছে যে তাঁকে পয়লা এপ্রিল থেকে বিদ্যুৎ বন্টনের ও সরবরাহের যাবতীয় তথ্য দিতে হবে৷ তিনি খুঁজে ও খতিয়ে দেখবেন কোন কোন এলাকায় সবথেকে বেশি বিদ্যুৎ প্রয়োজন হয়েছে৷ তবে তিনি নিশ্চিত মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় বিদ্যুৎ চুরি করা হয়েছে৷

আরও পড়ুন: লড়ছেন ইরফান, লন্ডন থেকে অসুস্থ অভিনেতার মর্মস্পর্শী চিঠি

তিনি ওই ইঞ্জিনিয়ারকে ধমক দিয়ে বলেন মুসলিম এলাকাগুলিতে ভাল করে পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যাবে কীভাবে চুরি করা হচ্ছে সেখানে৷ লখনউ-এর প্রধান দফতরে কথা বলে, এই চুরি আটকাবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন৷ ওই ইঞ্জিনিয়ার উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে হিন্দু ও শিল্পপতিদের বিরক্ত করা হচ্ছে৷ মুসলিমদের তোষণ করা হচ্ছে৷ এই প্রক্রিয়া চলতে দেবেন না তিনি বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ওই বিধায়ক৷

জানা যাচ্ছে যে বিধায়কের এক ঘনিষ্ঠ ব্যক্তির বিরুদ্ধে বিদ্যুৎ দফতর হুকিং করে বিদ্যুৎ নেওয়ার অভিযোগ আনে৷ সেই মর্মে ব্যবস্থাও নেওয়া হয়৷ তারপরেই ক্ষুব্ধ হয়ে বিদ্যুৎ বিভাগের আধিকারিককে ধমক দেন এবং হিন্দুদের ছেড়ে মুসলিমদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেন বিধায়ক সঞ্জয় গুপ্তা৷ বলাই বাহুল্য, অডিও ক্লিপটি ভাইরাল হতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে নেট দুনিয়ায়৷ সমালোচনার ঝড় উঠেছে সব মহলে৷

আরও পড়ুন: কোটিপতিদের দান-খয়রাত করে গরীবদের আত্মহত্যার পিছনে ভারতীয় ব্যাংক

Advertisement ---
---
-----