এক বছরের শিশু মৃত্যু ঘিরে রহস্য

স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: এক বছরের শিশুর অস্বাভাবিক মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল বাঁকুড়ার সিমলাপাল এলাকায়। মৃত শিশুর নাম তানিষ্কা চট্টোপাধ্যায়৷ তবে বাড়ি থেকে প্রিয়া নামেই তাকে সকলে চিনত৷ যদিও স্থানীয়দের একাংশ এই শিশু মৃত্যু ঘটনার নেপথ্যে তার মায়ের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ তুলছে।

স্থানীয় সূত্রের খবর, শনিবার সকালে স্থানীয় মৎস্যজীবীরা মাছ ধরতে সিমলাপাল শিলাবতী নদীতে গেলে এক শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করেন তাঁরা। সময় নষ্ট না করে তাঁরা স্থানীয় সিমলাপাল ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায় ওই শিশুকে৷ কিন্তু চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করে তাকে। এরপরই ওই এক বছরের এই শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে এলাকায় রহস্য ঘনীভূত হয়।

আরও পড়ুন: বাঁশদ্রোনি এলাকায় চুরি, আতঙ্কে এলাকাবাসী

- Advertisement -

এই প্রসঙ্গে মৃত শিশুর মা তাপসী চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘অন্যান্য দিনের মতো এদিন ভোর পৌনে পাঁচটা নাগাদ বাড়ির ময়লা ফেলে এসে দেখি বাড়িতে মেয়ে নেই। কি কারণে এমন ঘটনা ঘটল কিছুই বুঝতে পারছি না।’’ পাশাপাশি ওই শিশুর ঠাকুমা সন্ধ্যারাণী চট্টোপাধ্যায়ও বিষয়টি নিয়ে কিছুই জানেন না বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, ‘‘বৌমা ময়লা ফেলে এসে নাতনির খোঁজ করছিল। কি করে কি হয়ে গেল কিছুই বুঝতে পারছি না৷’’

তবে মেয়ের আকস্মিক মৃত্যুতে বাবা সুনীল চট্টোপাধ্যায় অন্য সন্দেহ করছেন৷ তিনি মনে করছেন এই ঘটনায় কেউ বা কারা জড়িত রয়েছে৷ কারণ এক বছরের শিশুর পক্ষে পায়ে হেঁটে নদীতে যাওয়া সম্ভব নয়। এই ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সুনীলবাবু৷

আরও পড়ুন: বহরমপুরে পুলিশ আবাসনে চুরির ঘটনায় চাঞ্চল্য

প্রসঙ্গত, স্থানীয়দের একাংশ এই ঘটনায় ওই শিশুর মায়ের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলছেন। স্থানীয় বাসিন্দা শান্তি সাউ বলেন, ‘‘গত রাত থেকেই ওদের পরিবারে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হচ্ছে। আমাদের সন্দেহ শিশুর মা ওই কাণ্ড ঘটিয়েছে।’’ অন্যান্য দিন ছোটো একটা বালতি নিয়ে ময়লা ফেললেও এদিন এত ভোরে বড় বালতি নিয়ে নদী আসার কারণ নিয়েও প্রশ্ন তোলেন স্থানীয়রা৷

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় স্থানীয় সিমলাপাল থানার পুলিশ৷ পুলিশের পক্ষ থেকে মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে পুলিশের পক্ষ থেকে এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করা হবে বলে জানানো হয়।

Advertisement ---
---
-----