স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মামলার জটে ঝুলে রয়েছে রাজ্যের অধিকাংশ গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি ও জেলা পরিষদের ভবিষ্যৎ৷ সুপ্রিম কোর্ট কবে রায় দেবে, তা এখনও স্পষ্ট হয়নি৷ কিন্তু তার জেরে যাতে উন্নয়নের কাজ বন্ধ না হয়, সেই বিষয়ে এবার সচেষ্ট হল রাজ্য সরকার৷

মঙ্গলবার নবান্ন থেকে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হল, আগামী তিন মাস প্রশাসকের হাতেই থাকবে গ্রামীণ বাংলার উন্নয়নের দায়িত্ব৷ গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি, জেলা পরিষদ তিনটির দায়িত্ব দেওয়া হল বিডিও, মহকুমাশাসক ও জেলাশাসককে৷

আরও পড়ুন: তৃণমূল ছেড়ে কংগ্রেসে আসুন, কটাক্ষ অভিষেককে

প্রসঙ্গত, এবারের পঞ্চায়েত ভোট শুরু থেকেই আদালতের জটে রয়েছে৷ তার জেরে ভোট পিছিয়েওছে একবার৷ শেষপর্যন্ত ভোট হলেও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ফল হওয়া আসনগুলি নিয়ে জটিলতা কাটেনি৷ ওই ৩৪ শতাংশ আসনের ভবিষ্যৎ কী হবে, তা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা চলছে৷ ওই মামলার শুনানি শেষ৷ কিন্তু রায় কবে বেরবে তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে৷

এদিকে এই পরিস্থিতিতে পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন না হলে উন্নয়নমূলক কাজ আটকে যাবে৷ তাই প্রশাসক বসাতেই হবে কাজ চালানোর জন্য৷ সেই কাজটাই করা হল প্রশাসনের তরফে৷

----
--