বিপুল পরিমাণ যৌন উদ্দীপক মাদক উদ্ধার

ঢাকা: ফের উদ্ধার হল নেশার দ্রব্যাদি৷ অবৈধভাবে নেশার দ্রব্যের কারবার নতুন নয়৷ আগেও একাধিকবার খবরের শিরোনামে থাকতে দেখা গিয়েছে এই ধরণের খবরাখবরকে৷ সেই ঘটনাই আবারও ঘটল বাংলাদেশের মাটিতে৷ ইথিওপিয়া থেকে বাংলাদেশের আসছে একটি পার্সেল৷

নিয়ম মেনেই লেখা থাকে সংস্থার নাম এবং ঠিকানা৷ কিন্তু, পার্সেলই রয়েছে নাকি মাদক দ্রব্য৷ বাংলাদেশকে এমনই খবর জানায় একটি আন্তর্জাতিক মাদক বিরোধী সংস্থা৷

আরও পড়ুন: শিশুদের খুন করে আত্মঘাতী মা

- Advertisement -

খবর পেয়ে আগে থেকেই প্রস্তুতি নেয় মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তারা৷ তারপরই প্রায় একেবারে হাতে নাতে ধরে ফেলেন পাচারকারীকে৷ মহম্মদ নাজিম, বয়স ৪৭ বছর৷ শুক্রবার দুপুরে পার্সেল নিতে যান শাহজালালের কার্গো ভিলেজে৷ সেখান থেকেই তাকে আটক করা হয়৷

পার্সেল থেকে উদ্ধার করা হয় প্রায় চারশ কেজি মাদক দ্রব্য৷ এখানেই শেষ নয়, নাজিমকে জেরা করে আরও সাড়ে চার কেজি মাদক দ্রব্যের সন্ধান পায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা৷

আরও পড়ুন: মাদলের শব্দে মন ভালো করতে ঘুরে আসুন মোরাম

অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আফ্রিকার দেশগুলিতে বহু বছর ধরেই প্রচলিত এই নেশাদ্রব্যটি৷ কাথ শ্রেণীভুক্ত এক ধরণের উদ্ভিদ থেকে সাধারণত পাওয়া যায় মাদকটি৷ ইদানিং হেরোইন বা ইয়াবার মত মাদকের বিকল্প হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে এই ভেষজ নেশার পাতা।

অভিযানের অন্যান্য কর্মীরা জানান, গ্রিনটির প্যাকেটের আদলে তৈরি করা হয়েছে মাদকের এই প্যাকেটগুলিকে৷ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ দফতরের একজন আধিকারিক বলেন, ‘যৌন উদ্দীপনা বাড়াতে বা দীর্ঘ সময় জেগে থাকতে সাহায্য করে মাদক দ্রব্যটি। তবে এর সেবন স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে ঝুঁকি তৈরি করতে পারে।’

আরও পড়ুন: ফ্লাশিং মেডোয় এপিক ম্যাচ জিতলেন নাদাল

Advertisement
-----