মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কেন দেখা করছেন না মোদী?

নয়াদিল্লি: প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বার বার দেখা করতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ কিন্তু প্রতিবারই তাঁকে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে৷ প্রশ্ন উঠতে শুরু করল, ‘সবকা সাথ সবকা narendra modi, pinarayi vijayan, keralaবিকাশ’ (সবাইকে নিয়ে উন্নয়ন) তত্ত্ব থেকে দূরে সরছেন মোদী ?

দেশের একমাত্র সিপিএম শাসিত রাজ্য কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে (সিএমও) জানানো হয়েছে, বিভিন্ন ইস্যুতে অন্তত চারবার প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য সময় চাওয়া হয়েছে৷ প্রতিবারই প্রধানমন্ত্রীর দফতর (পিএমও) জানায়, দেখা হওয়া সম্ভব নয়৷ আপনি অন্য মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে সমস্যা মেটান৷ এমনই জানাচ্ছে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস গোষ্ঠীর সংবাদপত্র জনসত্তা৷

রিপোর্টে বলা হয়েছে, খাদ্য ও গণবন্টন সংক্রান্ত বিশেষ আলোচনার জন্য কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনরাই বিজয়ন জরুরি ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে দেখা করতে চাইছেন৷ এর জন্য তিনি সময় চেয়েছেন৷ পিএমও থেকে সর্বশেষ তাঁকে জানানো হয়, আপনি সংশ্লিষ্ট বিভাগের মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ানের সঙ্গে দেখা করুন৷ এতেই ক্ষুব্ধ কেরল সরকার৷ প্রশ্ন উঠছে, অবিজেপি শাসিত রাজ্য বলেই কি প্রধানমন্ত্রী এড়িয়ে যাচ্ছেন ?

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, সর্বদলীয় প্রতিনিধিদের নিয়ে দিল্লি এসেছেন বিজয়ন৷ তারপরেই মোদীর সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি চান তিনি৷ অজ্ঞাত কারণে সেই অনুমতি দেওয়া হয়নি৷ এদিকে সিপিএম সূত্রে খবর, দলের কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকের জন্য এসেছেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী৷ দিল্লিতে থাকাকালীন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে খাদ্য ও গণবন্টন সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কথা বলতে চেয়েছিলেন৷

সম্প্রতি বিজয়ন ও মমতা একইসঙ্গে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ধরনায় উপস্থিত হন৷ সেই বৈঠকে ছিলেন কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী৷ অবিজেপি শাসিত রাজ্যের এই মুখ্যমন্ত্রীরা প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখে দিল্লির প্রশাসনিক সমস্যা সমাধানের আবেদন করেন৷ রাজনৈতিক মহলের ধারণা, এতেই ক্ষুব্ধ মোদী৷

Advertisement ---
---
-----