তিরুঅনন্তপুরম: বন্যা-বৃষ্টি, প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে বিধ্বস্ত কেরল৷ বহু প্রাণের বলি হয়েছে ইতিমধ্যেই৷ বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাসে আরও বাড়ছে আশঙ্কা৷ জারি হয়েছে রেড অ্যালার্ট৷ চলছে উদ্ধারকার্য৷ আর এমন অবস্থার মধ্যেই কেরলে একটি বাড়ির ছাদে হেলিকপ্টার নিয়ে দুর্গতদের উদ্ধারে নেমে পড়লেন শৌর্যচক্র জয়ী নেভি ক্যাপ্টেন পি রাজকুমার৷

জানা গিয়েছে, শুক্রবার এয়ারলিফট্ করে কেরলেরই একটি এলাকা থেকে ২৬জনকে উদ্ধার করেন তিনি৷ ঘনজঙ্গলের মাঝে ক্যাপ্টেন রাজকুমার সি কিং ৪২বি হেলিকপ্টার একটি ছাদের ওপর নামিয়ে ২৬জনকে উদ্ধার করেন৷

পড়ুন: বন্যা বিধ্বস্ত কেরলে পাহাড়ের খাঁজে আটকে বহু দেহ

বন্যা বিধ্বস্ত কেরলে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে ভারতীয় সেনা ও এনডিআরএফ। একাধিক ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, অনেককেই হেলিকপ্টারে করে উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও আটকে বহু মানুষ। সম্প্রতি, এক গর্ভবতী মহিলাকে এভাবেই উদ্ধার করে সেনাবাহিনীর বিশেষ টিম। আর তার ঠিক একদিন পরই সন্তানের জন্ম দেন ওই মহিলা।

ভারতীয় নৌসেনার ট্যুইটার হ্যান্ডেলে পোস্ট করা হয়েছিল সেই ভিডিও। দেখা যায় এক গর্ভবতী মহিলাকে হেলিকপ্টারে তুলে নেওয়া হচ্ছে। ২৫ বছর বয়সী ওই মহিলার নাম সাজিতা জাবিল। সেই মা ও সন্তানের ছবি এবার ট্যুইটারে পোস্ট করেছে নৌসেনা। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, ওই মহিলা ও তাঁর সন্তান সুস্থ রয়েছেন। কেরলের আলুভা থেকে ওই মহিলাকে উদ্ধার করা হয়েছিল।

পড়ুন: বিপর্যস্ত কেরলকে বাঁচাতে ৫০০ কোটি অনুদান মোদী সরকারের

কেরল জুড়ে চলছে অপারেশন সহযোগ৷ অপরাশেন করুণা চালাচ্ছে ভারতীয় বায়ু সেনা৷ শনিবার হেলিকপ্টারে চড়ে রাজ্যের বন্যা বিধ্বস্ত এলাকাগুলি পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷

এদিন কেরলের এই প্রতিকূল পরিস্থিতি থেকে রক্ষা করার জন্য ৫০০ কোটি টাকা মঞ্জুর করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। এদিন সকালে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের সঙ্গে বৈঠক করে এই আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেন মোদী।

এছাড়াও কেরলের বন্যায় মৃতদের পরিবার পিছু দুই লক্ষ করে টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। একই সঙ্গে বনার কারণে যারা জখম হয়েছেন তাঁদেরকে মাথা পিছু ৫০ হাজার করে টাকা দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন মোদী। এই সম্পূর্ণ অর্থই দেওয়া হবে প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিল থেকে।

----
--