‘পাকিস্তানে প্রার্থীদের হুমকি দিচ্ছে ISI’

ইসলামাবাদ: ভোটের পাকিস্তানে প্রধান ত্রাস পাক গুপ্তচর সংস্থা ISI৷ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীদের প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে গুপ্তচর সংস্থা৷ প্রাক ভোটে পাকিস্তান গোয়েন্দা সংস্থার বিরুদ্ধে এই বিস্ফোরক মন্তব্য নওয়াজ শরিফের৷

লন্ডন থেকে নওয়াজ জানান, পাক গুপ্তচর সংস্থাই নির্বাচনী প্রার্থীদের হুমকি দিচ্ছে৷ তিনি বলেন, ‘ অতিত থেকে কোনও শিক্ষাই নেয়নি পাকিস্তান৷ পাক গুপ্তচর সংস্থাই শান্তিতে ভোট হতে দেবে না৷’ নওয়াজের অভিযোগ ,ISI-র হুমকির মুখে পড়েছেন তাঁরই দল পাকিস্তান মুসলিম লীগের প্রার্থী রানা ইকবাল৷ মিথ্যে অভিযোগ চাপিয়ে ইকবালকে প্রার্থী পদ তুলে নিতে বাধ্য করেছে ISI৷ পঞ্জাব প্রদেশের প্রার্থী ছিলেন ইকবাল৷ শুধু তাই নয়, পাকিস্তানে নিষিদ্ধ সংগঠনগুলিকে ভোটের ছাড়পত্র দেওয়ার ক্ষেত্রেও হাত আছে ISI-র বলে জানান শরিফ৷

যদিও, ভোটের আগে প্রার্থী পদ তোলার হিড়িক পাকিস্তানে৷ প্রাণভয়ে পাকিস্তানের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা প্রার্থী পদ তুলে নিচ্ছেন৷ পরিস্থিতি এমনই যে, ২৫ জুলাই ভোটের আগে গোটা পাকিস্তান জুড়ে আতঙ্কের আবহ৷ অভিযোগ, প্রাণনাশের হুমকি, হেনস্থার মুখে পড়ছেন বেশিরভাগ প্রার্থী৷ বিষয়টি কড়া হাতে দেখার আশ্বাস পাক নির্বাচন কমিশন৷

- Advertisement -

পাকিস্তানের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে হুমকি সংক্রান্ত খবর দেওয়া হচ্ছে৷ অবশ্য পাক নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্ট প্রশাসকদের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের কথা জানাচ্ছে৷ কয়েকদিন আগেই হুমকি চিঠির অভিযোগ পাক নির্বাচন কমিশনকে জানান পঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ৷ অভিযোগ, মুলতান, নারওয়ালের বিভিন্ন প্রার্থীদের প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে৷ পাক নির্বাচন কমিশন বিষয়টিকে খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিলেও আঞ্চলিক প্রশাসকদের তৎপর থাকার কথা জানিয়েছে৷

পাকিস্তানে নিষিদ্ধ সংগঠন ভোট দাঁড়াচ্ছে৷ এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য মুম্বই হামলার মাস্টারমাইন্ড হাফিস সঈজের দল মিল্লি মুসলিম লীগ৷ প্রচারে নামছে হাফিজ সঈদও৷ এই পরিস্থিতিতে নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ জানাচ্ছে, নিষিদ্ধ দল ভোটে দাড়ালে ভোট প্রার্থীরা টিকতে পারবেন না, এটাই স্বাভাবিক৷ তাদের বাধ্য হয়েই প্রার্থী পদ তুলে নিতে হবে৷ নওয়াজের দাবি, পাকিস্তানের নাম দায়িত্ব নিয়ে খারাপ করছে ISI৷

Advertisement ---
---
-----