গান্ধীগিরিতে নয়, নেতাজির সশস্ত্র সংগ্রামেই এসেছে স্বাধীনতা

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা : রাজ্যবাসীকে নেতাজি মনস্ক করে তোলার পরিকল্পনা নিয়েছে ‘দেশনায়ক সুভাষ জাগরণ মঞ্চ’। তারা মনে করে ১৯৪৫-এর প্লেন দুর্ঘটনা আদতে পুরোটাই সাজানো ঘটনা। নেতাজি বেঁচেছিলেন। তাদের দাবি, স্বাধীনতা এসেছে নেতাজির লড়াইয়ের জন্যই।

নেতাজি অন্তর্ধানের বাকি থেকে যাওয়া ৭৭টি ফাইল খোলার দাবিতে সোচ্চার হয়েছে ‘দেশনায়ক সুভাষ জাগরণ মঞ্চ’। ১৮ আগস্ট তথাকথিত সেই বিমান দুর্ঘটনার দিন তাঁরা পথে নেমেছিলেন। এবার রাজ্যব্যাপী অভিযান চালাবে এই সংগঠন। উদ্দেশ্য মানুষকে নেতাজির মতো জাতীয়তাবাদী মনস্ক করে তোলা।

- Advertisement -

নেতাজি ভারতের প্রথম স্বাধীন সরকার গঠন করেছিলেন। তাঁর নেতৃত্বে তৈরি সেনাবাহিনীই ইংরেজশাসিত ভারতের রেঙ্গুনে উত্তোলন করেছিল দেশের জাতীয় পতাকা। নেতাজির সেই আজাদ হিন্দ ফৌজ নেই, তবে রয়েছে তাঁর আদর্শ। সেই আদর্শকে মানুষের মনে ছড়িয়ে দিতে চাইছে ‘দেশনায়ক সুভাষ জাগরণ মঞ্চ’।

প্রতিষ্ঠানের সম্পাদক কুণাল বসু বলেন, “ফাইল প্রকাশে কেন্দ্রের গড়িমসি দেখে এবার আমরাই শহর-গ্রামের বিভিন্ন প্রান্তে যাব। সাধারণ মানুষকে নেতাজির অজানা ইতিহাস, নানা গল্প তুলে ধরব। স্কুল-কলেজ সর্বত্র মিটিং মিছিল করব। নেতাজির জন্য সমস্ত রাজনৈতিক দলকে এগিয়ে আসতে আমরা অনুরোধ জানাচ্ছি।‘

কুণাল বসু আরও জানিয়েছেন, “এখনও পর্যন্ত যে কটি ফাইল প্রকাশ করা হয়েছে এবং যে সমস্ত তথ্য প্রমাণ মিলেছে তাতে স্পষ্ট যে নেতাজী বেঁচেছিলেন।” তৎকালীন কংগ্রেস দলের উপর ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে নেতাজিপ্রেমীরা জানাচ্ছেন, পুরো বিষয়টাই নিজের স্বার্থের উদ্দেশ্যে চেপে দিয়েছিলেন গান্ধী-নেহরু জুটি। আশা, উদ্ঘাটিত হবে সত্য।

Advertisement ---
---
-----