স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: অভিনব ‘শিক্ষণ দত্তক’ প্রকল্পের সূচনা হল বাঁকুড়ায়। জেলা পুলিশের উদ্যোগে শুক্রবার বাঁকুড়া পুলিশ লাইনে এই প্রকল্পের সূচনা করেন জেলা পুলিশ সুপার সুখেন্দু হীরা।

জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নব প্রজন্মের বেশ কিছু ছেলে মেয়ে লেখাপড়া ক্ষেত্রে বিশেষ মনোযোগী নয়। সেই সব ছেলে মেয়ের অভিভাবকদেরও পড়াশোনার বিষয়ে সচেতনতার যথেষ্ট অভাব রয়েছে। একই সঙ্গে সেইসব পরিবারের ছেলে মেয়েদের বাবা মায়েদের অনেকের গৃহশিক্ষক রাখার মতো আর্থিক ক্ষমতাও নেই। ফলে তাদের পড়াশুনা বিষয়ে উৎসাহিত করার কেউ নেই। সেইসব শিশুদের মধ্যে স্কুল ছুটের সংখ্যা বাড়ছে। সামাজিক উন্নয়ন ব্যাহত হচ্ছে। সেই কারণেই জেলা পুলিশ এই ‘শিক্ষণ দত্তক’ প্রকল্প হাতে নিয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

Advertisement

জেলা পুলিশ সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, এই প্রকল্পের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট এলাকার সিভিক ভলানটিয়ারই ওইসব শিশুদের পড়াবেন। পড়াশোনার সঙ্গে সঙ্গে অন্যান্য সামাজিক অনুশাসনের পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি, মূল্যবোধ ও শরীরচর্চার উপর জোর দেওয়া হবে। অর্থাৎ সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের সেইসব চিহ্নিত ছাত্র ছাত্রীদের শিক্ষণ বিষয়ে এবার দত্তক নিল বাঁকুড়া জেলা পুলিশ। প্রথম পর্যায়ে তালডাংরার ঢেমনামারা, হীরবাঁধের নোয়াডিহি, ছাতনার ধবন, রাঙ্গামেটিয়া ও ঘোষের গ্রাম সাঁওতাল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের এই প্রকল্পের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার সুখেন্দু হীরা বলেন, প্রত্যেককে শিক্ষার আঙ্গিনায় আনতেই পুলিশ এই উদ্যোগ নিয়েছে। প্রথম পর্যায়ে তিনটি থানা এলাকাকে নেওয়া হয়েছে। পরবর্তী ক্ষেত্রে এই প্রকল্পে অন্য থানা এলাকাগুলিকেও যুক্ত করা হবে।

----
--