ডিজিটাল ভারতের রেলস্টেশনে এবার দেখা যাবে ডিজিটাল মিউজিয়াম৷ ভারতীয় রেলের অজানা ইতিহাসের পাশাপাশি সেখানে তুলে ধরা হবে সংশ্লিষ্ট রেলস্টেশনের ইতিহাসও৷ ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবস থেকেই দেশের ২২টি রেলস্টেশনে চালু হচ্ছে এই মিউজিয়াম৷ ভারতীয় রেল সূত্রে খবর, এটি পাইলট প্রজেক্ট৷ হাওড়া, শিয়ালদহর মতো দেশের প্রথমসারির রেলস্টেশনগুলিতে প্রথমে মিউজিয়াম চালু হবে৷ সাফল্য এলে ধীরে ধীরে বাড়বে সেই সংখ্যা৷

রেলসূত্রে খবর, প্রধানমন্ত্রীর দফতর নাকি রেলস্টেশনে মিউজিয়াম তৈরির জন্য অতিরিক্ত খরচে বিশেষ আগ্রহী নয়৷ সম্প্রতি একটি বৈঠকে সে কথা তারা জানিয়েও দেয়৷ এরপরই রেলমন্ত্রক সিদ্ধান্ত নেয় রেলস্টেশনের দেওয়ালে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে ডিজিটাল মিউজিয়াম তৈরি করবে৷

Advertisement

আরও পড়ুন: নাচের তালে অনুব্রত দোলে..

গত ৮ আগস্ট রেলওয়ে বোর্ড ডিরেক্টর (হেরিটেজ) একটি সূচনাপত্র প্রকাশ করেন৷ সেখানে বলা হয়েছে, রেলওয়ে মিউজিয়ামের পরিকাঠামোর জন্য মোদী সরকার অতিরিক্ত খরচ করতে পারবে না৷ বরং রেলস্টেশনের দেওয়ালে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে মিউজিয়াম তৈরি করা যেতে পারে৷ সেখানে ভারতীয় রেলের ইতিহাসের পাশাপাশি বর্তমান অগ্রগতির তথ্য তুলে ধরা যাবে৷

রেলমন্ত্রকের সিদ্ধান্ত, আপাতত পাইলট স্কিম হিসাবে দেশের ২২টি রেলস্টেশনে চালু করা হবে ডিজিটাল মিউজিয়াম৷ এক্ষেত্রে যেসব স্টেশনে রঙিন ডিজিটল মাল্টিমিডিয়া স্ক্রিন রয়েছে সেগুলিই বাছাই করা হয়েছে৷ পশ্চিমবঙ্গের তিনটি রেলস্টেশন জায়গা করে নিয়েছে সেই তালিকায়৷ শিয়ালদহ, হাওড়ার পাশাপাশি নাম রয়েছে নিউ জলপাইগুড়িরও৷

আরও পড়ুন: এবছর বর্ষায় মৃত্যু ৭১৮ জনের, জানাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

তালিকায় আছে লক্ষ্মৌ, বারাণসী, রায়বেড়েলি, সুলতানপুর, প্রয়াগ, অম্বালা, নতুন দিল্লি, দিল্লি, হজরত নিজামুদ্দিন, আগ্রা ক্যান্টনমেন্ট, গোরক্ষপুর, গুয়াহাটি, কাটিহার, জয়পুর, এরোদ, কোয়েম্বাটুর, সেকেন্দ্রাবাদ, বিজয়য়াড়া, বেঙ্গালুরুর নাম৷ ভারতীয় রেলের এক আধিকারিকের কথায়, এই স্বাধীনতা দিবসে ডিজিটাল ভারতের অগ্রগতি হবে আরও এক ধাপ৷

----
--