পোস্টার বিতর্ক ঘিরে উত্তপ্ত উত্তর প্রদেশ

লখনউ: শেষ হয়ে গিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন। নির্বাচনের আগে বিরোধী পক্ষকে কড়া ভাষায় আক্রমণের সুর শোনা গিয়েছে সব রাজনৈতিক দলের নেতাদের মুখে। কিন্তু, দেশের সব থেকে বড় রাজ্য উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিরোধী শিবিরকে আক্রমণের হাতিয়ার হয়ে দাঁড়িয়েছে পোস্টার। ২০১৭ বিধানসভা নির্বাচনে পোস্টারের মাধ্যমেই চলছে পরস্পরকে আক্রমণ।

ঘটনার সূত্রপাত, কিছুদিন আগে কংগ্রেস সহ সভাপতি রাহুল গান্ধীকে একটি পোস্টারে দেখানো হয় ‘সিঙ্ঘাম’ রূপে। এরপরেই পোস্টারকে হাতিয়ার করে আসরে নামে পদ্ম শিবির। গোরক্ষপুরের সাংসদ যোগী আদিত্যনাথকে নিয়ে তৈরি হয়েছে পোস্টার। যেখানে দেখা যাচ্ছে আদিত্যনাথ একটি বাঘের পিঠে বসে আছে। আর অন্যদিকে অখিলেশ যাদব, মায়াবতী, আসাদুদ্দিন ওয়াইসি এবং রাহুল গান্ধী সওয়ার হয়েছেন গাধার পিঠে। উত্তর প্রদেশ বিজেপির সংখ্যালঘু শাখার নেতা ইরফান আহমেদের কথায়, “আমরা যোগী আদিত্যনাথকেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাই। আমরা নিশ্চিত যে ২০১৭ বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিই উত্তর প্রদেশে সরকার গড়বে।”

এই বিষয়ে সমাজবাদী পার্টির ওই রাজ্যের প্রেসিডেন্ট মহসিন খান বলেছেন, “আমাদের দল অহিংসায় বিশ্বাস করে। হিংসায় বিশ্বাসী যারা তারাই বাঘের পিঠে চড়ে।” এআইএমআইএম নেতা সমীর সিদ্দিকি বিজেপির পোস্টারের তীব্র নিন্দা করে বলেছেন, “আমরা ওই পোস্টারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাব। বিজেপি সাম্প্রদায়িক উস্কানি দেওয়ার চেষ্টা করছে।” এই পোস্টারেই বিজেপির আসল চেহারা প্রকাশ পেয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএসপি নেতা বৃজেশ কুমার। একই মত পোষণ করেছেন কংগ্রেস নেতা আনোয়ার হোসেন।