অসাধু চক্র ভাঙতে কড়া পদক্ষেপ রোগীকল্যাণ সমিতির

কৃষ্ণনগর: কল্যাণী জওহরলাল নেহেরু মেমোরিয়াল হাসপাতালের ভেতর বিভিন্ন রকমের অসাধু চক্র ভাঙতে কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতি।শুক্রবার কল্যাণী জওহরলাল নেহেরু মেমোরিয়াল হাসপাতালে এসে পরিষ্কার করে সে কথাই জানিয়ে দিলেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী তথা রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

প্রসঙ্গত গত চার জুলাই রাতে কল্যাণী জওহরলাল নেহেরু মেমোরিয়াল হাসপাতালের সামনে মদ্যপ কিছু দুষ্কৃতীর হাতে প্রহৃত হন কয়েকজন জুনিয়ার ডাক্তার।তাদের বাঁচাতে এসে বেধড়ক মার খান হাসপাতালের কিছু হাউস স্টাফও।অভিযোগ ওঠে স্থানীয় কিছু ঔষধ ব্যবসায়ীর কথা মতন প্রেসক্রিপসান না লিখতে চাওয়ায় মার খেতে হয় জুনিয়ার ডাক্তারদের।

এই ঘটনার পরই নড়েচড়ে বসে রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে স্থানীয় এক তৃণমূল নেতার ছেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।আর শুক্রবার কল্যানী মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ জওহরলাল নেহেরু মেমোরিয়াল হাসপাতালের কতৃপক্ষের সঙ্গে এই নিয়ে বৈঠকেও বসেন৷ এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন খাদ্যমন্ত্রী তথা রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন হাসপাতালের বিভিন্ন জায়গায় সিসিটিভি বসিয়ে মনিটরিং করার ব্যবস্থা করা হবে।হাসপাতালের তরফ থেকে হাসপাতালের বিভিন্ন জায়গায় এই সংক্রান্ত বোর্ডও লাগানো হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ যেখানে পরিষ্কারভাবে লেখা থাকবে হাসপাতালে ভরতি ও চিকিৎসা করাতে কোনো খরচ লাগবে না।এমনকি হাসপাতাল থেকে বিনামূল্যে ওষুধ পাওয়া যাবে সেটাও লেখা থাকবে।প্রতি শুক্রবার করে হাসপাতালের চিকিৎসকরা প্রয়োজনীয় ওষুধের তালিকা জমা দেবেন৷ সেই মতন হাসপাতালে ঔষধ মজুত করা হবে। চিকিৎসকরা বাইরে প্রেসক্রিপসান পাঠাতে পারবেন না।

Advertisement
---
-----