বিয়ের ১০ দিন আগে থেকেই শুরু হবে সেলিব্রেশন!

মুম্বই: মেয়ে খ্রীষ্টান মতে বিয়ে করুক কিংবা হিন্দু মতে! বিয়ের আগে পাঞ্জাবী রীতি অনুসারে রোকা হবে। এটাই ছিল প্রিয়াঙ্কার মায়ের ইচ্ছা। ঠিক তেমনি আরেক তারকার মা চান বিয়ের আগে দশ দিন ধরে মেয়ে জামাইয়ের মঙ্গলের জন্য পুজো রাখতে। মায়ের সেই ইচ্ছেকে সম্মান জানাতেই রন-দীপির বিয়ের সেলিব্রেশন শুরু হচ্ছে দশদিন আগে থেকেই।

জানা গিয়েছে, নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহতেই পরিবারের সঙ্গে বেঙ্গালুরুতে পৌঁছে যাবেন রনবীর সিং। সেখানেই করা হবে পুজোর আয়োজন। তাছাড়া দীপিকার মা বেঙ্গালুরুর নন্দী মন্দিরের পুরোহিতদের সঙ্গে কথা বলে নিয়েছেন। পাত্র-পাত্রীকে নিয়ে সেখানেও নাকি পুজোর আয়োজন করা হবে। আর তারপরই ম্যারেজ ডেস্টিনেশন ইতালিতে উড়ে যাবেন তারা।

আরও পড়ুন: দেবের চ্যালেঞ্জ অ্যাক্সেপ্ট করার সাহস আছে আপনার?

ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে

যতদূত শোনা যাচ্ছে, তাতে ২০ নভেম্বর ইতালির লেক কোমোতে বসতে চলেছে বাজিরাও-মস্তানির বিয়ের আসর। উপস্থিত থাকবে পরিবারের সদস্য ছাড়া কিছু নিকট বন্ধু-বান্ধব। বিশেষ এদিনে ডিজাইনার সব্যসাচীর আউটফিটে সাজবেন দীপিকা। শোনা যাচ্ছে, সোনা, হিরে বা প্ল্যাটিনাম নয় বিয়ের দিন রুপোর গয়নায় সাজতে চান পদ্মাবতী।

ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে

পাশাপাশি এটাও জানা গিয়েছে, সোনম আর আনন্দের বিয়ে দেখে নাকি সতর্ক হয়েছেন লাভ বার্ডস। যেভাবে সোনমের বিয়ের আচার-অনুষ্ঠান ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায় তা নাকি একদমই পছন্দ হয়নি নায়িকা। তাই নিজেদের ব্যক্তিগত মুহূর্ত গুলো প্রাইভেট রাখতে চান রণ-দীপি। সেকারণে বিয়ের অনুষ্ঠানে অতিথিদের মোবাইল না ব্যবহার করার অনুরোধ করবেন না। বিয়ের পাঠ চুকিয়ে গেলে আবার ফোন ইউজ করতে পারবে তাঁরা।

আরও পড়ুন: কেমন আছে রাজযোটকের বনি? দেখে নিন চোখ ধাঁধানো ছবি

ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে

প্রসঙ্গত, কখনও নভেম্বর তো কখনও ডিসেম্বর। কখনও সুজারল্যান্ড তো কখনও আমচি মুম্বই। বছরের শুরু থেকেই টিনসেলের হটেস্ট গসিপ রণ-দীপিকার বিয়ে। বিভিন্ন সময় নানান জল্পনার ধুলো উড়েছে বলিপাড়ায়। তবে জানা গিয়েছে ২০ নভেম্বর সাত পাকে বাঁধা পড়বেন তাঁরা। অভিনেতা-অভিনেত্রীর অলওয়েজ ফেভারিট হলি-ডে ডেস্টিনেশন ইতালি। তাই এই জায়গাকে বিয়ের ভেনু হিসাবে বেছে নিয়েছেন এই লাভ বার্ডস। আসলে নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে কথা বলতে চান না রণ ও দীপি। তাই ডেস্টিনেশন ওয়েডিং বেছে নিয়েছেন তাঁরা। সেই কারণে বিয়েতে নিমন্ত্রিত থাকবেন দুই পরিবারের আত্মীয় ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা। জানা গিয়েছে সেই লিস্ট ৩০ জনের বেশি নয়।

----
-----