নয়াদিল্লি: এক মহিলা সেনা অফিসারকে হুমকি দেওয়া ও অশালীন ছবি পাঠানোর অভিযোগে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে চার্জশিট ফাইল করল জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা বা এনআইএ৷ মহম্মদ পারভেজ নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ সোমবার তার বিরুদ্ধে চার্জশিট ফাইল করা হয়৷ অভিযোগ, ওই মহিলা সেনা অফিসারকে সেনসেটিভ তথ্য পাঠানোর জন্য হুমকি দেয় ওই ব্যক্তি৷

মহম্মদ পারভেজের বয়স ৪৩ বছর৷ সে ভারতীয় নাগরিক৷ কিন্তু তার সঙ্গে আইএসআইয়ের যোগ রয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে৷ ভারতীয় দন্ডবিধির একাধিক ধারায় তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ সেই সঙ্গে আনলফুল অ্যাক্টিভিটিস প্রিভেনশন অ্যাক্ট (UAPA)-র কয়েকটি ধারাতেও তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে৷

অভিযোগ, সে এক মহিলা সেনা অফিসারকে অশালীন ও বিকৃত ছবি পাঠাচ্ছিল৷ হোয়াটস অ্যাপ ও ফেসবুকের মাধ্যমে ছবিগুলি সে ওই সেনা অফিসারকে পাঠাত বলে অভিযোগ৷ এরপর সে ছবিগুলো সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস করে দেবে বলে হুমকি দিত৷

ওই মহিলা ভারতীয় সেনার কর্নেল পোস্টে কর্মরত৷ দিল্লিতে তাঁর পোস্টিং৷ ঘটনার পর দিল্লি পুলিশের কাছে তিনি অভিযোগ দায়ের করেন৷ পরে মামলাটি এনআইএ-র হাতে হস্তান্তরিত করা হয়৷ এনআইএ-র তরফ থেকে জানানো হয়েছে, পাকিস্তানের গোয়েন্দা বিভাগের অফিসারদের চাপে এমন করেছে ওই ব্যক্তি৷ জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত তথ্য পাচার করার জন্য ভারতীয় সেনা অফিসারকে ক্রমাগত ব্ল্যাকমেল করছিল ধৃত ব্যক্তি৷

সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে এই অভিযোগ দায়ের হয়েছিল৷ কিন্তু বছরের শেষে মামলাটি হাতে পায় এনআইএ৷ তিন মাসেরও কম সময়ে চার্জশিট ফাইল করে তারা৷ মহিলা ওই অফিসার জানিয়েছেন একতা শর্মা নাম নিয়ে মহম্মদ পারভেজ ঘটনাগুলি ঘটাত৷

দিল্লির চাঁদনি চক এলাকায় থাকে পারভেজ৷ তার কাছ থেকে একাধিক সিম কার্ড পাওয়া গিয়েছে৷ সে যে ঘন ঘন পাকিস্তান যেত, তারও প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে৷

----
--