বকরি ইদে কোনও গোহত্যা চলবে না : মুখ্যমন্ত্রী

লখনউ: বকরি ইদে রাজ্যে কোনও গো হত্যা করা চলবে না৷ সরকারি আধিকারিকদের এমনই নির্দেশ দিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ বিশেষ করে স্পর্শকাতর এলাকাগুলিতে নজরদারি চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন তিনি৷

সামনেই বকরি ইদ৷ সেদিন যাতে কোনও গরু চোরাচালান না হয় বা গোহত্যা না হয়, তাঁর নির্দেশ দিয়েছেন তিনি৷ এরজন্য বিভিন্ন এলাকার প্রশাসনিক আধিকারিকদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে৷

পড়ুন: গোরক্ষকদের তাণ্ডব, গোহত্যার অভিযোগে পিটিয়ে খুন ব্যক্তি

- Advertisement -

একটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই নির্দেশিকা বিভিন্ন জেলার জেলাশাসকদের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী৷ এজন্য শুধু নজরদারি নয়, রীতিমতো পেট্রলিং চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পুলিশ প্রশাসনকে৷

২২ শে আগষ্ট বকরি ইদ৷ ইসলাম ধর্মের রীতি অনুযায়ী সেদিন বিভিন্ন পশুর বলি দেওয়া হয়৷ বিশেষত গরু বলি প্রথা রয়েছে ইসলামে৷ এই নিয়ে বহুবার বহু সংঘর্ষের মুখে পড়তে হয়েছে রাজ্য প্রশাসনকে৷ বিঘ্নিত হয়েছে আইন শৃঙ্খলা৷ এই পরিস্থিতি যাতে নতুন করে তৈরি না হয়, তাই মুখ্যমন্ত্রীর এই নির্দেশ বলে মনে করা হচ্ছে৷

পড়ুন: গোহত্যা চললে, গণপিটুনিও চলবে: বিজেপি বিধায়ক

এর আগে, আরএসএস নেতা ইন্দ্রেশ কুমার বলেন গণধোলাই বন্ধ করতে হলে গোহত্যার মত পাপ করা বন্ধ করতে হবে৷ এই প্রসঙ্গে খ্রিস্টান ও মুসলিম ধর্মের কথা টেনে আনেন ইন্দ্রেশ কুমার। তাঁর কথায়, যিশু গোশালায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন। সেজন্য খ্রিস্টানরা গোমাতার কথা বলে। মক্কা ও মদিনাতেও গোহত্যা বন্ধ। আমরা কি মানবতাকে এই পাপ থেকে মুক্ত করতে পারি না? যদি তা হয়, গণধোলাইয়ের সমস্যা আপনা থেকে দূর হয়ে যাবে।

পড়ুন: দেশে সন্ত্রাসবাদের অন্যতম উৎস গো হত্যা ও পাচারের টাকা

Advertisement ---
-----