যোগে নেই রাজ্য বিজেপির ডক্টরস-স্বাস্থ্য পরিষেবা সেল

বিশ্বজিৎ ঘোষ, কলকাতা: স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের শিবিরে অংশগ্রহণ করেন৷ এ দিকে, আরও বেশি সংখ্যক মানুষ যাতে যোগ অনুশীলনে অভ্যস্ত হয়ে ওঠেন, তার জন্য প্রচেষ্টা জারি রেখেছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকার৷

অথচ, এই দিবস পালনের জন্য পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির ডক্টরস এবং স্বাস্থ্য পরিষেবা সেলের তরফে কোনও কর্মসূচি রাখা হয়নি৷ এমনকি, রাজ্য বিজেপির তরফেও ২১ জুন আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপনের জন্য কোনও কর্মসূচি নেই৷ স্বাভাবিক কারণেই, এই বিষয়টিকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন মহলে চর্চা চলছে৷ কোনও কোনও মহলে প্রশ্নও উঠছে৷ যার জেরে দেখা দিয়েছে বিতর্ক৷

২০১৫ থেকে ২১ জুন আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালিত হচ্ছে৷ এ বারও বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে এই দিন বিভিন্ন শিবিরে অংশগ্রহণ করছেন বহু মানুষ৷ ওয়াকিবহাল মহলের বিভিন্ন অংশের তরফে এমনই বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে দেখে বহু মানুষ নিয়মিত যোগ অনুশীলনের জন্য উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন৷ যোগ অনুশীলনে অভ্যস্ত হওয়ার জন্য তাঁরা প্রচেষ্টাও জারি রাখছেন৷

এই ধরনের পরিস্থিতির মধ্যে আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে রাজ্য বিজেপির তরফে কোনও কর্মসূচি রয়েছে? এই বিষয়ে রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘‘রাজ্য বিজেপির তরফে কোনও কর্মসূচি নেই৷’’ তবে, কলকাতায় আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের এক শিবিরে রাজ্য বিজেপির অনেক নেতা অংশগ্রহণ করবেন বলে জানানো হয়েছে৷

স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিয়মিত যোগ অনুশীলনের বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ৷ তবে, চিকিৎসকদের মতে, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ অনুযায়ী যোগ অনুশীলন করা উচিত৷ রাজ্য বিজেপির ডক্টরস সেলের তরফে আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে কোনও কর্মসূচি রয়েছে? শারীরিক এবং মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষার লক্ষ্যে আরও বেশি সংখ্যক মানুষ যাতে নিয়মিত যোগ অনুশীলনে অভ্যস্ত হয়ে ওঠেন, তার জন্য এই সেলের তরফে কোনও আর্জি? রাজ্য বিজেপির ডক্টরস সেলের আহ্বায়ক, চিকিৎসক সুভাষ সরকারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘‘আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে রাজ্য বিজেপির ডক্টরস সেলের কোনও কর্মসূচি নেই৷’’

একই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘আমাদের অন্য নানা কর্মসূচির কারণে আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে কোনও কর্মসূচি রাখা হয়নি৷’’ অন্য বিভিন্ন কর্মসূচি বলতে…? চিকিৎসক সুভাষ সরকার বলেন, ‘‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান, জরুরি অবস্থা এবং শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের উপর কর্মসূচি রয়েছে৷’’ একই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ আসছেন৷ গণতন্ত্র বাঁচাও কর্মসূচিতে জেলাশাসকদের কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হচ্ছে৷’’ আর, রাজ্য বিজেপির স্বাস্থ্য পরিষেবা সেল? এই সেলের আহ্বায়ক সঞ্জয় সিংয়ের কাছে জানতে হলে তিনি বলেন, ‘‘আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে স্বাস্থ্য পরিষেবা সেলের আলাদা কোনও কর্মসূচি নেই৷’’

Advertisement
----
-----