ওয়াশিংটন: ভারত যখন পরমাণু অস্ত্রের হুমকি দেয় তা নিয়েও একবারও কেউ কোনও প্রশ্ন তোলে না। অথচ পাকিস্তান পরমাণু অস্ত্র তৈরি করলেই বার বার এই নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। পক্ষপাতিত্ব করা হয় পাকিস্তানের সঙ্গে৷ এমনই অভিযোগ প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মুশারফের৷

তিনি বলেন পাকিস্তানের সঙ্গে পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করা হয় সব ক্ষেত্রে৷ পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের নামে একঘরে করে রাখা হয়৷ অথচ সেই কাজই যখন ভারত করে, তখন তাদের কেউ একঘরে করে না৷

Advertisement

দিন কয়েক আগে এক অনুষ্ঠানে সাক্ষাতকার দিতে গিয়ে তিনি বলেন, এই আচরণ সবথেকে বেশি করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র৷ তারাই বিভিন্ন দেশের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করে৷ কখনই ভারতকে তারা পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণের জন্য বলে না৷

আর চার পাশে পরমাণু শক্তিধর প্রতিবেশী দেশকে দেখে নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার জন্যই বাধ্য হয়ে পাকিস্তান পরমাণু অস্ত্র তৈরি করে। আমেরিকার উচিত ভারতকে থামতে বলা। পাকিস্তান সব সময়েই নিজেদের পরমাণু অস্ত্র পরিকল্পনা প্রকাশ্যে করে থাকে৷ এখানে কোথাও গোপনীয়তা নেই৷

পারভেজ মুশারফের বক্তব্যে উঠে আসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনাও৷ তিনি বলেন, ‌পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারি বাজপেয়ী এবং মনমোহন সিং দু‌জনের সঙ্গেই কথা হয়েছে তাঁর৷ তাঁরা শান্তি আলোচনা এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইতেন।

তবে মোদী সরকারের বিদেশনীতি পাক বিরোধী৷ সেখানে আলোচনার কোনও জায়গা নেই৷ নরেন্দ্র মোদী আলোচনার কোনও উদ্যোগ নেয়নি বলে অভিযোগ করেন তিনি৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে জোট করে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত ষড়যন্ত্র করে বলেও এদিন অভিযোগ করেন মুশারফ৷

----
--