কলেজে হিজাব পরতে বাধা দেওয়ায় হাইকোর্টের দ্বারস্থ ছাত্রী

মুম্বই: পরীক্ষায় বসতে না দেওয়ায় বম্বে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হল হোমিওপ্যাথির এক ছাত্রী৷ তার অভিযোগ, হিজাব পরে ক্লাসে তাকে প্রবেশে বারবার বাধা দেওয়া হয়েছে৷ এর জন্য তার অ্যাটেনডেন্স কম হয়৷ ক্লাসে উপস্থিতি কম দেখিয়ে তাকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়নি৷

পড়ুন: হিজাবে ঢাকা আরব মহিলারা নয়নভরে দেখবেন ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’

সূত্রের খবর, সাই হোমিওপ্যাথি মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রী বান্দ্রার ফাকিহা বাদামি অভিযোগ দায়ের করে জানায়, হিজাব পরে তাকে ক্লাসে বসার অনুমতি না দেওয়ার কারণেই তার অ্যাটেনডেন্স কম হয়৷ ফাকিহা তাঁর অভিযোগে জানায়, মুসলিম ছাত্রীদের হিজাব পরতে বাধা দেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ৷ ফাকিরা এমইউএইচএস এবং আয়ুষ মন্ত্রকে চিঠি লিখে সমস্যার কখা জানায়৷

- Advertisement -

প্রত্যুত্তরে কলেজকেই এই সমস্যা সমাধানের কথা বলা হয়৷ কলেজ কোনওভাবেই হিজাবে পরিধানে বাধা দিতে পারে না বলে মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বলা হয়৷ কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি৷ এর আগে ২০১৭ সালের নভেম্বরেও তাকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়নি৷

পড়ুন: হিজাব খুলতে বলায় পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা

ফাকিরা তাঁর অভিযোগপত্রে এও জানান, অন্যান্য মুসলিম ছাত্রীরা হয় হিজাব পরা ছেড়ে দিয়েছে, নাহলে এই প্রতিষ্ঠান ছেড়ে দিয়েছে৷ কিন্তু ফাকিরা এই প্রতিষ্ঠানে থেকে হিজাব পরা না ছাড়ায় তাঁকে এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে বলে অভিযোগ তাঁর৷ বিচারপতি এস জে কথাওয়ালা এবং বিচারপতি অজয় গড়করীর বেঞ্চে আগামী ২৫ মে এই মামলার শুনানি হবে বলে জানা গিয়েছে৷

Advertisement ---
---
-----