ইসলামাবাদ: আগামী মাসেই পাকিস্তানে ফিরছেন সেদেশের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশারফ। তবে তার নিরাপত্তা দায় নেবে না পাকিস্তান। এমনটাই জানিয়ে দিয়েছে সেদেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। স্পেশাল কোর্টের এক মামলার কারণেই তিনি দেশে ফিরছেন বলে জানা গিয়েছে।

পারভেজ মোশারফ দেশে ফিরলে তাঁকে যাতে নিরাপত্তা দেওয়া হয়, সেব্যাপারে আবেদন জানিয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকে ঠিঠি পাঠানো হয়। প্রত্যুত্তরে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সেই আবেদন বাতিল করে দিয়েছে। তারা স্পষ্ট জানিয়েছে যে, এটা তাদের কাজ নয়। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ‘ডন’ এই তথ্য প্রকাশ করেছে।

Advertisement

প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের সেকশন অফিসার আখতার মালিকের পক্ষ থেকে পারভেজ মোশারফের দুবাইয়ের ঠিকানায় পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, পারভেজ মোশারফকে নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্ব প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের দায়িত্বের মাঝে পড়ে না।

চিঠির সত্যতা স্বীকার করেছেন পারভেজ মোশারফের আইনজীবী আখতার শাহ। তিনি জানান, পারভেজ মোশারফ তাঁর নিরাপত্তার ব্যাপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের উপর ভরসা করতে পারছে না। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক তো পারভেজ মোশারফের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। ফলে সেখান থেকে নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব নয়।

গত বছর থেকে চিকিৎসার জন্য দুবাইতে রয়েছে পারভেজ মোশারফ। ২০১৪ তে তিনি পাকিস্তান ছাড়েন। পাকিস্তানের ইতিহাসে এই প্রথম কোনও প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ হয়। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাঁর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বা মৃত্যুদণ্ডও হতে পারে।

----
--