‘ফ্ল্যশব্যাকে’ সচিনের টেস্ট অভিষেক

মুম্বই: ‘ফ্ল্যাশব্যাক’-এ লিটল মাস্টার! ১৯৮৯-এর আজকের দিনেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা-রেখেছিলেন সচিন রমেশ তেন্ডুলকর৷ ২৮ বছর আগে ১৫ নভেম্বর, করাচি টেস্টে অভিষেক হয়েছিল আর এক কিংবদন্তির৷ তিনি পাক পেসার ওয়াকার ইউনিস৷ দু’জনেই তাঁদের ক্রিকেট কেরিয়ারে একাধিক নজির গড়েছেন৷ ভেঙেছেন একাধিক রের্কড৷
১৫ নভেম্বর, ১৯৮৯৷ মাত্র ১৬ বছর বয়সে সে সময় বিশ্বসেরা পাক পেস বোলিংয়ের বিরুদ্ধে টেস্টে অভিষেক হয়েছিল ‘ক্রিকেটঈশ্বর’-এর৷ ঝাঁকড়া চুলের সেদিনের সচিন ব্যাট হাতে নেমেছিলেন ছ’নম্বরে৷ এ বছরেই ১৮ ডিসেম্বর পাকিস্তানের বিরুদ্ধেই ওয়ান ডে অভিষেক হয়েছিল প্রতিশ্রুতিময় মারাঠি যুবকের।

আরও পড়ুন- জন্মদিনে কোহলিকে কী বললেন সচিন?

করাচি থেকে মুম্বই! ২৪ বছরের গ্ল্যামারাস অধ্যায়ের যবনিকা পড়েছিল তাঁর ঘরের মাঠে৷ ১৬ নভেম্বর, ২০১৩ ওয়াংখেড়েয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ারকে গুডবাই জানিয়েছিলেন লিটল মাস্টার৷ তখন সচিনের নামের পাশে লেখা ২০০ টেস্ট৷ বিশ্বের প্রথম ও একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে ২০০টি টেস্ট খেলার নজির গড়েন বান্দ্রার সাহিত্য সহবাসের তরুণটি৷ ৩২৯ ইনিংস মিলিয়ে রয়েছে ১৫ হাজারেরও বেশী টেস্ট রান৷ পাশাপাশি ৪৬৩টি ওয়ান ডে ম্যাচে মাস্টার ব্লাস্টারের রানের সংখ্যা ১৮,৪২৬৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন- বাইক আরোহীদের ধমক দিচ্ছেন সচিন, দেখুন ভিডিও

অভিষেক সিরিজ হতে পারত সচিনের শেষ সিরিজ! পাকিস্তানের বিরুদ্ধে শিয়ালকোটে চতুর্থ টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ওয়াকারের গতির সামনে সমস্যায় পড়েন সচিন৷ পাক পেসারের বাউন্সারে নাক ফেটে রক্ত ঝড়ে সচিনের৷ চোট গুরুতর হওয়ার সত্ত্বেও বাইশ গজ ছেড়ে পলায়ন করেনি বছর ষোলোর মারাঠি কিশোর৷ সতীর্থরা তাঁকে বিশ্রামের পরামর্শ দিলেও তাতে কর্ণপাত না-করে বুক চিতিয়ে লড়াই করেছেন ইমরান-ওয়াসিম-ওয়াকারের বিধ্বংসী বোলিংয়ের বিরুদ্ধে৷

আরও পড়ুন- অল্পের জন্য রক্ষা পেল সচিনের রেকর্ড

মাঠেই নাকের শুশ্রুষা নিয়ে ব্যাট হাতে লড়াই শুরু করেছিলেন মাস্টার৷ ইস্পাত কঠিন মানসিকতার পরিচয় দিয়ে ত্রিফলা পাক পেস জুটির বিরুদ্ধে ঘন্টার পর ঘন্টা লড়াই করে ৫৭ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচ ড্র করতে বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন সচিন৷

আরও পড়ুন-সচিনকে টপকে শীর্ষে বিরাট

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেক হলেও মাস্টারের ব্যাটে প্রথম শতরানটি এসেছিল পরের বছর ইংল্যান্ড সফরে৷ ১৯৯০ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাঞ্চেস্টার টেস্টে ১১৯ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে ম্যাচের সেরার পুরস্কার জিতে নিয়েছিলেন লিটল মাস্টার৷

আরও পড়ুন-সচিনের লিটল মাস্টার হওয়ার গল্প এবার কমিক্সে

Advertisement ---
---
-----