ভারত সফরের দ্বিতীয় দিনে মন্দির-মসজিদ-গুরদোয়ারায় গেলেন ট্রাম্পের দূত

নয়াদিল্লি: ভারত ও আমেরিকার সম্পর্ক আরও দৃঢ় করতে নয়াদিল্লিতে এসেছেন রাষ্ট্রসংঘে আমেরিকার রাষ্ট্রদূত ভারতীয় বংশোদ্ভূত নিকি হ্যালি। বৃহস্পতিবার সকালে প্রথমে গৌরী শঙ্কর মন্দিরে গেলেন তিনি। এরপরই তিনি যান জামা মসজিদে। মসজিদের বাইরে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথাও বলেন তিনি।

নয়াদিল্লি: পঞ্জাবের শিখ পরিবারের মেয়ে নিকি হ্যালি চাঁদনি চকের গুরুদোয়ারাতেও যান। এটি দিল্লির বিখ্যাত সিস গঞ্জ গুরুদোয়ারা। শিখ সম্প্রদায়ের রীতি মেনে ওই গুরুদোয়ারায় চাপাটিও বানান তিনি। বহু মানুষকে প্রসাদ বিতরণ করা হয়। সঙ্গে ছিলেন ভারতের মার্কিন রাষ্ট্রদূত কেনেথ জাস্টার। সেন্ট্রাল ব্যাপটিস্ট চার্চও পরিদর্শন করেন তিনি।

গুরুদয়ারার পরিদর্শনের পর নিকি হ্যলির সঙ্গে ওরেগোনের ডিটেনশন সেন্টারে থাকা ৫৩ জন ভারতীয়ের ব্যাপারে কথা বলে ‘দিল্লি শিখ গুরুদোয়ারা ম্যানেজমেন্ট কমিটি।’ ওই ৫২ জনের মধ্যে বেশিরভাগই শিখ।

- Advertisement -

হুমায়ুনের সমাধি পরিদর্শন করে ভারত সফর শুরু করেন নিকি। সেখানে গিয়ে বুধবার তিনি বলেন, ‘মানুষের স্বাধীনতার অধিকারের মতই ধর্মীয় স্বাধীনতাও সমান গুরুত্বপূর্ণ।’

বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। সন্ত্রাস-দমন সহ একাধিক বিষয়ে কথা হয় দু’জনের। এছাড়া বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের মুখোমুখি হয়ে ভারত ও আমেরিকার স্ট্র্যাটেজিক পার্টনারশিপ নিয়েও কথা বলেন নিকি হ্যালি।

রাষ্ট্রসংঘের দূত হিসেবে নিযুক্ত হওয়ার পরে এই প্রথম ভারত সফরে এসেছেন নিকি হ্যালি। বুধবার তিনি দিল্লিতে মুঘল সম্রাট হুমায়ুনের সমাধি পরিদর্শন করেন। ভারতীয় সংস্কৃতির ভূয়সী প্রশংসা করে তিনি বলেন, “এই সমাধি থেকে বোঝা যায় যে ভারতীয় সংস্কৃতি কত মূল্যবান। আর ভারতে সংস্কৃতিকে কতটা গুরুত্ব দেওয়া হয়।” সমাধির মাধ্যমে অতীতকে মনে রাখা যায় এবং ভবিষ্যতের জন্যেও নিজেদের সংস্কৃতি রক্ষা করা যায় বলে জানিয়েছেন নিকি হ্যালি।

বুধবার সাংবাদিকদের সামনে ভারত-মার্কিন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক মজবুত করার বিষয়েও নিজের অভিমত প্রকাশ করেছেন মার্কিন দূত। সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলায় দুই দেশ একত্রে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নিতে পারে বলে জানিয়েছেন নিকি হ্যালি। একই সঙ্গে ভারত সম্পর্কে নিজের আবেগ ফুটে উঠেছে তাঁর কথায়। তিনি বলেছেন, “ভারতে এলেই আমার মন খুব ভালো হয়ে যায়। মনে হয় যেন নিজের বাড়িতে এলাম। ছোটবেলায় বাবা-মায়ের সঙ্গে এই সময়েই ভারতে আসতাম।” এই গরমের সময়েই ভারত সফর করতে পছন্দ করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি।

Advertisement
---