খরচ কমাতে হেঁটে অফিসে গেলেন জেলাশাসক

স্টাফ রিপোর্টার, রায়গঞ্জ: সপ্তাহে একদিন ‘নো ভেহিকলস ডে’ কর্মসূচি গ্রহণ করল উত্তর দিনাজপুর জেলা প্রশাসন। মূলত সরকারি ব্যয় সংকোচ করতেই এই অভিনব উদ্যোগ উত্তর দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের।

জেলাশাসক সহ জেলার সমস্ত আধিকারিকই সপ্তাহে একটা দিন সরকারি গাড়ি ব্যবহার বন্ধ রাখবেন। সেই কর্মসূচির অঙ্গ হিসেবে বুধবার বেলা দশটায় উত্তর দিনাজপুর জেলাশাসক অরবিন্দকুমার মীনা-সহ জেলার সমস্ত আধিকারিক নিজেদের বাংলো থেকে পায়ে হেঁটে দফতরে কাজে যোগ দিলেন।

আরও পড়ুন: ফাইনালে উঠে উচ্ছ্বসিত এমবাপে-পোগবারা

- Advertisement DFP -

মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন সরকারি ব্যায় সংকোচ করতে হবে। মুখ্যমন্ত্রীর ব্যয় সংকোচ নীতি নির্ধারণের ঘোষণা হতে না হতেই বুধবার সকালে নিজেদের বাংলো থেকে পায়ে হেঁটে অফিসে এলেন স্বয়ং উত্তর দিনাজপুর জেলাশাসক অরবিন্দকুমার মীনা। শুধু জেলাশাসক অরবিন্দকুমার মীনাই নয়, জেলার সব অতিরিক্ত জেলাশাসক, মহকুমাশাসক-সহ জেলার সমস্ত আধিকারিকেরাই নিজেদের বাংলো থেকে এদিন কাজে যোগ দেন।

সপ্তাহে একদিন অফিস থেকে বাড়ি বা বাড়ি থেকে অফিস যাওয়া আসা করতে সরকারি কোনও গাড়ি ব্যবহার করবেন না জেলার সর্বোচ্চ আধিকারিক উত্তর দিনাজপুর জেলাশাসক-সহ সব দফতরের অফিসাররা। এর ফলে অনেকটাই ব্যয় সংকোচ হবে বলে ধারণা আধিকারিকদের। এছাড়াও ব্যায় সংকোচের ক্ষেত্রে পারিবারিক কাজেও আমলাদের গাড়ি ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করতে চলেছে উত্তর দিনাজপুর জেলা প্রশাসন।

আরও পড়ুন: জানেন, ভারতের সাহায্যেই উদ্ধারকাজ সফল হয়েছে থাইল্যান্ডে?

উত্তর দিনাজপুর জেলাশাসক অরবিন্দকুমার মীনা জানিয়েছেন, সপ্তাহে একদিন ‘নো ভেহিকেলস ডে’ পালন করার পাশাপাশি সরকারি বৈঠকগুলোতে টিফিন খরচ কমানো হবে। রাশ টানা হবে বিডিওদের সঙ্গে জেলাশাসকের বৈঠকেরও। সরকারি গাড়ির তেল পুড়িয়ে জেলাসদর কর্ণজোড়ায় না ডেকে পাঠিয়ে এখন থেকে ভিডিও কনফারেন্স করেই কাজ চালানোর সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন উত্তর দিনাজপুর জেলাশাসক অরবিন্দকুমার মীনা।

আর এসবই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি ব্যয় সংকোচের কথা মাথায় রেখেই করা হচ্ছে বলে জানালেন তিনি। এদিকে সরকারের এই ব্যয় সংকোচন নীতি প্রসঙ্গে রায়গঞ্জের বিধায়ক তথা উত্তর দিনাজপুর জেলা কংগ্রেস সভাপতি মোহিত সেনগুপ্ত জানিয়েছেন, প্রশাসনের এই উদ্যোগ ভালো৷ তবে সপ্তাহে একদিনের বদলে প্রতিদিন করা হলে ভালো হত। যদিও জেলা প্রশাসনের এই কর্মসূচি কত দিন চলে সেটাই এখন দেখার বিষয়।

আরও পড়ুন: মোদী দেখবেন রাস্তার ধারে দিদি দাঁড়িয়ে রয়েছেন …

Advertisement
----
-----