পিছিয়ে গেল মোদী বিরোধী জোটের বৈঠক

নয়াদিল্লি: পিছিয়ে গেল মোদী বিরোধী রাজনৈতিক জোটের বৈঠক। চলতি মাসের ৩০ তারিখে দিল্লিতে ওই বৈঠক হওয়ার কথা ছিল।

২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে রুখতে হব গেরুয়া ঝড়। সেই উদ্দেশ্যে জোটবদ্ধ হচ্ছে বিজেপি বিরোধী সকল রাজনৈতিক দল। এই সকল দলগুলিকে নিয়ে ফেডারেল ফ্রন্ট গঠনের ডাক দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে এগিয়ে এসেছে ভারতের জাতীয় কংগ্রেস। প্রয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর পদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ছাড়তেও রাজি রাহুল গান্ধী।

আরও পড়ুন- চিদাম্বরমের রাফাল নিশানায় মোদী

- Advertisement -

গত মে মাসে কর্ণাটকের বিধানসভা নির্বাচনের সময় থেকে জোরাল হতে শুরু করে ফেডারেল ফ্রন্টের দাবি। ওই রাজ্যে বিজেপি একক বৃহত্তম দল হলেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়েই সরকার গঠন করে কংগ্রেস-জেডি(এস) জোট। সেই জোট সরকারের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন বিজেপি বিরোধী অনেক রাজনৈতিক দলের নেতারা। নিজেদের মধ্যেকার প্রতিকূলতা দূর করে সকলেই সামিল হয়েছিলেন বিজেপি বিরোধিতায়।

আরও পড়ুন- ভাই মোদীর জন্য রাখী তৈরি করছেন মুসলিম বোনেরা

কিন্তু কোন পথে এগোবে ফেডারেল ফ্রন্ট? লোকসভা নির্বাচনে লড়াইয়ের নীল নকশা তৈরি করতেই দিল্লিতে বৈঠক ডেকেছিল কংগ্রেস। উপস্থিত থাকার কথা ছিল তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ আরও ১৭টি রাজনৈতিক দলের শীর্ষস্তরের নেতার।

কিন্তু আপাতত হচ্ছে না ওই বৈঠক। ৩০ অগস্ট চেন্নাইয়ে করুণানিধির স্মরণসভা রয়েছে। সেই কারণে বাতিল করা হয়েছে বিরোধী জোটের বৈঠক। কংগ্রেস সূত্রে জানা গিয়েছে, গত শুক্রবার আহমেদ প্যাটেল ফোন করেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তিনিই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে বৈঠক বাতিলের কথা জানান।

আরও পড়ুন- তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে উত্তপ্ত কেষ্টর খাসতালুক

Advertisement ---
---
-----