ত্রিলোচন মাহাত খুনের তদন্ত ৮ সপ্তাহের মধ্যে শেষ করার নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ৮ সপ্তাহের মধ্যে শেষ করতে হবে পুরুলিয়ায় বিজেপি কর্মী ত্রিলোচন মাহাতো খুনের ঘটনার তদন্ত৷ সিআইডিকে নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট৷

বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তী আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেন৷ বিচারপতি নির্দেশ দিয়েছেন ওই দিনই সিআইডি তদন্ত শেষ করে সম্পূর্ণ রিপোর্ট আদালতের কাছে পেশ করবে৷

আরও পড়ুন: BIG BREAKING! গভীর রাতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী

- Advertisement -

এরআগে, ছেলের মৃত্যু রহস্য তদন্তে সিবিআই তদন্তের আর্জি জানিয়েছিলেন ত্রিলোচন মাহাতোর বাবা হরিরাম মাহাতো। শুক্রবার মামলার শুনানিতে সিআইডি মুখ বন্ধ খামে রিপোর্ট জমা দিলেও তা আদালতে খোলা হয়নি। এই দিন অতিরিক্ত অ্যাডভোকেট জেনারেল অভ্রতোষ মজুমদার আদালতে জানান মামলাকারীর পরিবারের সদস্যদের সম্পূর্ন নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে৷ তবে আদালতে তা মানতে অস্বীকার করেন মামলাকারী হরিরাম মাহাতোর আইনজীবী৷

তিনি অভিযোগ করেন মাহাতো পরিবার আজও পালিয়ে বেড়াচ্ছে৷ অতিরিক্ত অ্যাডভোকেট জেনারেল অভ্রতোষ মজুমদার বলেন মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে৷ আদালত অনুমতি দিলে ভিডিও গ্রাফি এবং তথ্য দুই জমা দেওয়ার কথা বলেন তিনি৷

আরও পড়ুন: ভূগোল অনার্সের দর উঠল এক লক্ষ টাকা!

বুধবার হরিরামের আইনজীবী পার্থসারথী সেনগুপ্ত এবং প্রিয়াংকা তিবরেওয়াল বলেন, হরিরাম বাবু মামলা করার পর সিআইডি নড়েচড়ে বসেছে এবং সিআইডি এই ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে। তাই আমরা সিআইডি তদন্তের গতিপ্রকৃতি দেখে নিতে চাই। আদালত ১৫ দিনের জন্য মামলার শুনানি স্থগিত করুক। তদন্তের অগ্রগতি কি হয়েছে তার রিপোর্ট আদালতে জমা দিক রাজ্য। এছাড়া সিআইডির এডিজি’কে এই মামলায় পক্ষভুক্ত করারও আবেদন জানান মামলাকারীর আইনজীবী পার্থ সারথী সেনগুপ্ত।

আরও পড়ুন: নায়িকাকে ধর্ষণ গরাদের ওপারে প্রযোজক

তবে রাজ্যের অতিরিক্ত আডভোকেট জেনারেল অভ্রতোষ মজুমদার বলেন, সিআইডি তদন্ত করছে। তখন বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তী রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দেন, আগামী ২৭ জুলাই সিআইডি তদন্তের অগ্রগতি সম্বন্ধে আদালতের কাছে মৌখিকভাবে জানাতে হবে ।

রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোটে পুরুলিয়ায় নজরকাড়া ফল করেছে বিজেপি। ভোটের ফল বেরনোর পর বলরামপুরের বিজেপি কর্মী ত্রিলোচন মাহাতোর ঝুলন্ত দেহ উদ্বার হয়। পরিবারের অভিযোগ ত্রিলোচনের মৃত দেহের পাশ থেকে হুমকি চিরকূটও মেলে। রাজ্য সরকার ঘটনার তদন্তভার দেয় সিআইডিকে। ত্রিলোচনের মৃত্যুর পেছনে শাসকদল তৃণমূলের হাত রয়েছে বলে দাবি তার পরিবারের।

আরও পড়ুন: কলকাতায় অভিনব কায়দায় প্রতারণা, পুলিশের জালে ৩

Advertisement ---
---
-----