#Amritsar: দুর্ঘটনার পরেই সপরিবারে বেপাত্তা আয়োজক কংগ্রেস নেতা

সৌরভ মাদান

অমৃতসর: দশেরার অনুষ্ঠানে ট্রেন দুর্ঘটনার পরে পার হয়ে গিয়েছে দুই দিন। দোষারোপ এবং পালটা দোষারোপের পালা চলছেই। এরই মাঝে বেপাত্তা হয়ে গিয়েছেন বিনা অনুমতিতে দশেরার আয়োজন করা কংগ্রেস কাউন্সিলর এবং তাঁর পরিবার।

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় অমৃতসরের কাছে জোড়া ফটকের চৌরা বাজার এলাকায় দশেরার অনুষ্ঠানে ঘটে গিয়েছিল বিরাট রেল দুর্ঘটনা। রেল লাইনের উপরে দাড়িয়ে টাকা দশেরার দর্শকদের উপর দিয়ে চলে গিয়েছে ছুটন্ত ট্রেন। যার জেরে প্রাণ গিয়েছে প্রায় ৬০ জনের। জখম হয়েছেন প্রায় শতাধিক।

সৌরভ মাদান

সেই ঘটনার পর থেকেই এলাকা ছেড়ে গা-ঢাকা দিয়েছেন ওই দশেরা অনুষ্ঠানের আয়োজক স্থানীয় কাউন্সিলর বিজয় মাদান। ঘটনার পর থেকেই দেখা নেই ওই কংগ্রেস নেতার স্ত্রী এবং ছেলে সৌরভ মাদানেরও।

ওই ঘটনার রাতেই আয়োজকদের কাঠগড়ায় তুলেছিল স্থানীয়রা। একই দাবি ছিল রেল কর্তৃপক্ষেরও। কারণ রেল লাইনের পাশে অনুষ্ঠান করা হলেও রেল দফতরকে সেই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। একই সঙ্গে ট্রেন আসার সময়ে আয়োজকদের পক্ষ থেকে সাধারণ দর্শকদের কোনও সতর্ক বার্তাও দেওয়া হয়নি। যার কারণে প্রথম থেকেই আয়োজক কংগ্রেস নেতাদের উপরে ক্ষুব্ধ ছিলেন স্থানীয়রা।

সৌরভ মাদান

ক্ষুব্ধ জনতা ঘটনার পরেই আয়োজক কাউন্সিলরের বাড়ির সামনে সমবেত হয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে দেয়। কিন্তু বাড়িতে কেউ ছিল না। প্রতিবেশীদের দাবি, বিপদ বুঝেই এলাকা থেকে সপরিবারে পালিয়ে গিয়েছেন কংগ্রেস কাউন্সিলর বিজয় মাদান। জনগণের থেকে বাঁচতেই জনপ্রতিনিধি লুকিয়ে রয়েছেন বলেও কটাক্ষ করছেন অনেকে।

এলাকার সিসিটিভি ফুটেজে অবশ্য ধরা পড়েছে দুর্ঘটনার পরে মাদান পরিবারের গতিবিধি। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার কিছু পরে ঘটেছিল দুর্ঘটনা। স্থানীয় সিসিটিভি ফুটেজ অনুসারে ৬টা বেজে ৫৭ মিনিট নাগাদ বাড়ি ছেড়েছিল কাউন্সিলর পুত্র সৌরভ। এর পর থেকেই আর কোনও খবর নেই ওই পরিবারের কোনও সদস্যের। সকলের মোবাইলও বন্ধ রয়েছে।

মন্ত্রী সিধুর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় সৌরভ মাদান

দুর্ঘটনার সময়ে ঘটনাস্থলে ছিলেন কংগ্রেস নেত্রী নভোজিত কৌর সিধু। তিনি আবার সম্পর্কে ওই রাজ্যের মন্ত্রী নভোজিত সিং সিধুর স্ত্রী। ঘটনার পরেই মন্ত্রী পত্নী এলাকা ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। তবে স্ত্রীর পাশে দাড়িয়ে মন্ত্রী নভোজিত বলেছেন, “আমার স্ত্রীর সেদিন পাঁচটা অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রণ ছিল। চৌরা বাজারেরটা ছিল চতুর্থ। পঞ্চম অনুষ্ঠানে রওনা হওয়ার পরে দুর্ঘটনা ঘটে।” দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে না গেলেও কংগ্রেস নেত্রী কৌর সিধু হাসপাতালে গিয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন মন্ত্রী নভোজিত সিং সিধু।

----
-----