নয়াদিল্লি: প্রায় ১ কোটি ভুয়ো অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী চিহ্নিত করল কেন্দ্রের নারী ও শিশু কল্যাণ দফতর। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মেনকা গান্ধী এদিন জানিয়েছেন ভুয়ো কর্মীদের চিহ্নিত করে তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের বেতন বাড়ানো হয়েছে মূল বেতনের প্রায় দেড় গুণ। তাদের মাসিক বেতন ৩০০০ থেকে বেড়ে হয় ৪৫০০করা হয়। নিম্ন অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের বেতন ২২৫০ থেকে ৩৫০০ করা হয় এবং তাদের সাহায্যকারীদের বেতন ১৫০০ থেকে ২২৫০ করা হয়।

Advertisement

আরও পড়ুন: একই সপ্তাহে পর পর গণপিটুনি, মৃত্যু একাধিক!

এদিন মেনকা গান্ধী বলেন,’‘এই বেতন বৃদ্ধি তাদের কাজে উৎসাহিত করবে। যা আমাদের ‘পোষণ অভিযান’কে সফল করবে। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞ তিনি এই বিষয়টিকে এতটা গুরুত্ব দিয়েছেন। এভাবেই আমরা অপুষ্টি রুখতে জন-আন্দোলন গড়ে তুলতে পারব৷’’

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরও জানিয়েছেন,বিগত চার বছর ধরে কেন্দ্রের সরকার দেশের অপুষ্টি দূর করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। শিশুকল্যাণের জন্য বেশ কিছু কর্মসূচির পাশাপাশি, অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রগুলিকে পর্যবেক্ষণের মধ্যে রাখা হয়েছে।

‘ আমরা নারী ও শিশুকল্যাণ, স্বাস্থ্য, গ্রামোন্নয়ন, আদিবাসী কল্যাণ, মানবসম্পদ উন্নয়ন,পানীয় জল, স্যানিটেশন প্রভৃতি বিষয়গুলির উপর বেশী লক্ষ্য দিতে চেয়েছি। আমাদের এই উদ্যোগের মাধ্যমে সরকার দেশবাসীকে এই বার্তাই দিতে চায় যে শিশুর স্বাস্থ্য ও সুস্থ জীবনকেই আমরা সব কিছুর উপরে রেখেছি’ এএনআই’কে দেওয়া সাক্ষাতকারে এমনটাই জানিয়েছেন নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী মেনকা গান্ধী।

----
--