‘ভীরু’ মোশারফ নির্বাচনে লড়বেন না, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

ইসলামাবাদ: নওয়াজ শরিফের পর পারভেজ মোশারফ৷ পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচনে লড়াই করার আশায় জল ঢেলে দিল সেদেশের সুপ্রিম কোর্ট৷ এবারের সাধারণ নির্বাচনে ভোটে দাঁড়াতে পারবেন না প্রাক্তন সেনাপ্রধান৷ বৃহস্পতিবার জানাল সেদেশের সুপ্রিম কোর্ট৷

পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ও সেনাপ্রধান এবারের নির্বাচনে লড়াই করবেন বলে জানিয়েছিলেন৷ সেই মতো ছিতরল কেন্দ্রের হয়ে মনোনয়ন পত্র জমাও দেন৷ তিনি যাতে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারেন তার জন্য সুপ্রিম কোর্টের কাছে শর্তসাপেক্ষে ভোটে লড়াই করার অনুমিত চান৷

কয়েকদিন আগে সুপ্রিম কোর্টের তিন সদস্যের বেঞ্চ পারভেজ মোশারফকে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার অনুমিত দেয়৷ প্রধান বিচারপতি মোশারফকে জানান ২৫ জুলাইয়ের নির্বাচনে অংশ নিতে হলে ১৩ জুন আদালতে হাজিরা থাকতে হবে৷ মোশারফের আইনজীবী জানান হাজিরা দেওয়ার পর তাঁর মক্কেলকে যেন গ্রেফতার করা না হয়৷ কোর্ট সেই নিশ্চয়তা দেয়৷

- Advertisement -

কিন্তু ১৩ জুন তিনি আদালতে হাজির না হওয়ায় সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের তীব্র কটাক্ষ ও ভৎর্সনার মুখে পড়েন মোশারফ৷ প্রধান বিচারপতি সাকিব নিসার প্রাক্তন সেনাপ্রধানকে ‘ভীরু’ বলে কটাক্ষ করেন৷ সেই সঙ্গে বৃহস্পতিবার দুপুর ২টো পর্যন্ত তাঁকে আদালতে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেন৷ কিন্তু এ দিনও আদালতে হাজিরা দিতে না পারায় প্রধান বিচারপতি তাঁকে নির্বাচনে লড়াই করার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন৷

তবে এ দিন সকালে অল পাকিস্তান মুসলিম লিগ টুইট করে মোশারফের দেশে ফেরার কথা জানায়৷ আগাম ঘোষণা করা সত্ত্বেও কেন তিনি এলেন না তা পরিস্কার নয়৷ ২০১৬ সাল থেকে দুবাইতে থাকছেন মোশারফ৷

Advertisement ---
---
-----