পঞ্চায়েত আশান্তি! মন্ত্রীদের নজরদারির নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন নিয়ে জেলায় জেলায় অশান্তি জারি৷  প্রকাশ্যে আসছে একের পর এক সংঘর্ষের খবর৷ কোথাও শাসক বিরোধী তো কোথাও শাসকেরই দুই গোষ্ঠী, অশান্তিতে জড়িয়ে পড়েছে৷ যা নিয়ে রীতিমত ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

আজ মন্ত্রিসভার বৈঠকে জেলার দায়িন্তবপ্রাপ্ত মন্ত্রীদের এই বিষয়ে নজর দেওয়ার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী৷ অশান্তি এড়াতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেন তিনি৷পঞ্চায়েত বোর্ড গঠন নিয়ে জেলায় জেলায় অশান্তি বন্ধ করতে হবে মন্ত্রীদেরই৷ তার জন্য আরও বেশি সময় দিতে হবে বলেই পরামর্শ দেন নেত্রী৷ সূত্রের খবর, দেগঙ্গার ঘটনায় ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে ধমকের সুরে বলেন ‘‘এলাকায় আরও বেশি সময় দাও৷ অশান্তি বন্ধ কর৷’’

পড়ুন:বোর্ড গড়তে পঞ্চায়েতের দুই নির্দল সদস্যকে অপহরণের অভিযোগ জঙ্গলমহলে

- Advertisement -

মুখ্যমন্ত্রী প্রথম থেকেই বলে এসেছেন বদলার রাজনীতি তৃণমূল করে না৷ বিভিন্ন সভায় বক্তব্য রাখার সময়ও তিনি বারংবার বার্তা দিয়ে এসেছেন, দলে থেকে অশান্তি করা যাবে না৷ কিন্তু কোথায় কি, পান্তা ভাতে ঘি! মুখ্যমন্ত্রীর কথার থোরাই কেয়ার৷ পঞ্চায়েত বোর্ড গঠন নিয়ে রীতিমত শুরু হয়েছে খুনোখুনি৷ রাজনৈতিক এই সংঘর্ষের ঘটনায় আজ মালদহের মানিকচকে খুন হয়েছেন দু’জন৷ বোমাবাজিতে আহত এক শিশুও৷ পালাকাটায় তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে৷ তবে শুধু বিরোধী গোষ্ঠী নয়৷

আরও পড়ুন:পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনের আগেই তাজা বোমা উদ্ধার মুর্শিদাবাদে

কোন্ কোন্ এলাকায় তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ বেধেও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে এলাকা৷ আর এতেই বেজায় চটেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো৷ উত্তপ্ত বিজেপি স্বাসিত পুরুলিয়াও৷ দীর্ঘ তিন মাস যাবৎ শীর্ষ আদালতে ঝুলে ছিল পঞ্চায়েত মামলা৷ ৩৪ শতাংশ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তৃণমূল কংগ্রেসের জয় লাভের বিষয়ে শীর্ষ আদালতের দারস্থ হয় বিজেপি নেতৃত্ব৷

দীর্ঘ বাদানুবাদের পর শুক্রবার অবশেষে সুপ্রিম রায় দেয় আদালত৷ যদিও সেই রায় রাজ্য সরকারের পক্ষেই যায়৷ জয়ী আসনে আর ভোট হবে না বলেই জানিয়ে দেয় আদালত৷ মেয়াদ উত্তীর্ণ পঞ্চায়েতগুলিতে শুরু হয় বোর্ড গঠন প্রক্রিয়া৷ আর তাতেই অশান্তি ছড়িয়েছে জেলায় জেলায়৷

Advertisement ---
---
-----