অসুস্থ ছাত্রকে দেখতে হাসপাতালে মুখ্যমন্ত্রী

লখনউ: রায়ান কাণ্ডের ছায়া লখনউয়ের ব্রাইটল্যান্ড স্কুলে৷ স্কুলের শৌচাগার থেকে রক্তাক্ত ও অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয় প্রথম শ্রেণির এক পড়ুয়াকে৷ সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীর বিরুদ্ধে ছুরি দিয়ে খুন করার অভিযোগ ওঠে৷ তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ পরে অভিভাবকদের বিক্ষোভের চাপে স্কুলের প্রিন্সিপালকেও গ্রেফতার করে পুলিশ৷ এদিকে ঘটনার পর থেকে হাসপাতালে ভর্তি হৃতিক শর্মা নামে ওই প্রথম শ্রেণির পড়ুয়া৷ বৃহস্পতিবার হৃতিককে দেখতে হাসপাতালে যান মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, ছুরি জাতীয় ধারাল অস্ত্র দিয়ে তাকে কোপানো হয়েছে৷ হৃতিকের বুক ও তলপেটে আঘাত গুরুতর৷ কিন্তু বিপদমুক্ত আছে সে৷ ছেলেটির বাবা মা জানিয়েছে, মঙ্গলবার সকালে ঘটে ঘটনাটি৷ এলাহাবাদ হাইকোর্টের পিওন হৃতিকের বাবা জানান, স্কুল থেকে ফোন করে খবরটা দেওয়া হয়৷ সপ্তম ক্লাসের এক পড়ুয়া ছুরি দিয়ে তাকে জখম করে৷ সঙ্গে সঙ্গে স্ত্রীকে নিয়ে হাসপাতালে ছুটে যাই৷ বুধবার ওই স্কুল ছাত্রীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ জানিয়েছে হৃতিকের পরিবার৷

এদিকে খবরটি ছড়িয়ে পড়ার পরই অভিভাবকদের মধ্যে প্যানিক ছড়িয়ে পড়ে৷ স্কুলে তাদের সন্তানদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন তারা৷ এদিন সকাল থেকে তারা স্কুল গেটের বাইরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন৷ পরে বিক্ষোভকারীদের চাপে স্কুলের প্রিন্সিপালকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ শৌচাগারটিও সিল করে দেওয়া হয়েছে৷

- Advertisement -

এই ঘটনা মনে করে দিয়েছে গুরুগাঁও এর রায়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ঘটনা৷ গত বছরের ৮ সেপ্টেম্বর স্কুলের শৌচাগারে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায় আট বছরের প্রদ্যুম্নকে৷ স্কুলের পরীক্ষা যাতে স্থগিত হয়ে যায় সেই জন্য উঁচু ক্লাসের এক ছাত্র প্রদ্যুম্নকে খুন করে বলে অভিযোগ৷

Advertisement ---
---
-----