শিক্ষামন্ত্রীর বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ ৫০০ বাংলার শিক্ষকের! কারণ জানেন?

কলকাতাঃ  একাধিক দাবিতে ফের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ির সামনে ধরনায় বসলেন প্রায় ৫০০ শিক্ষক। আজ রবিবার শিক্ষামন্ত্রীর বাড়ির সামনে দীর্ঘ-সময় ধরনা দেখান কম্পিউটার লিটারেসি ট্রেনিং প্রোজেক্টের সঙ্গে যুক্ত এই শিক্ষকরা। তাদের দাবি, দ্রুত চাকরিতে স্থায়ী করতে হবে তাদের।

শুধু তাই নয়, যাদের চাকরি গেছে তাঁদের অবিলম্বে চাকরিতে ফিরিয়ে দিতে হবে। এমনই একাধিক ইস্যুতে দীর্ঘক্ষণ ধরে চলে এই বিক্ষোভ কর্মসূচি। এরপর শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনার পর ওঠে বিক্ষোভ।

যদিও এদিনের মতো বিক্ষোভ উঠলেও বিক্ষোভকারী শিক্ষকদের হুঁশিয়ারি, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সমস্যা না মিটলে বৃহত্তর আন্দোলনে নামতে বাধ্য হব।

- Advertisement DFP -

প্রসঙ্গত, কম্পিউটার লিটারেসি ট্রেনিং প্রোজেক্টের সঙ্গে যুক্ত এই শিক্ষকরা দীর্ঘদিন ধরেই তাদের দাবি জানিয়ে আসছিলেন। কিন্তু কোনও কাজ হচ্ছিল না বলেই অভিযোগ তাদের। আর তাই আজ প্রায় ৫০০ শিক্ষক নাকতলাতে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ির সামনে ধরনায় বসেন। প্রায় চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা ধরে চলে বিক্ষোভ। তবে অবশেষে বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় গাড়ি থামিয়ে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী। আন্দোলনকারীদের বক্তব্য, শিক্ষামন্ত্রী তাঁদের কথা শুনেছেন।

আন্দোলনকারী শিক্ষকদের দাবি, তারা ২০০১ সাল থেকে কাজ করছেন। ক্লাস ফাইভ থেকে ক্লাস টুয়েলভ পর্যন্ত ক্লাস নেন। শুধু তাই নয়, বোর্ডের পরীক্ষা নেন এবং খাতাও দেখেন তারা। কিন্তু কোনও কারণ ছাড়াই তাদের ছাটাই করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। এমনকি, কোনও বেতন কাঠামো নেই বলেও অভিযোগ তাদের। আর তাই এভাবে বিক্ষোভ দেখাতে বাধ্য হয়েছেন বলে দাবি আন্দোলনকারীদের। এমনকি, আগামীদিনে এই বিষয়ে সরকার কোনও ব্যবস্থা না নিলে বৃহত্তর আন্দোলনে যাওয়ার হুমকি।

Advertisement
----
-----