জমি নিয়ে ফেলে রাখলে দিতে হবে জরিমানা

কলকাতা: সরকারি জমি নিয়ে তা কাজে না লাগিয়ে দিনের পর দিন ফেলে রেখে দিলে এবার জমির মালিককে বড় অংকের জরিমানা গুনতে হবে৷

নবান্ন সূত্রে এমনটাই খবর৷ সরকার লক্ষ্য করেছে বহু ব্যক্তি বা ব্যক্তিগোষ্ঠী অথবা সংস্থা সরকারের কাছ থেকে জমি নিয়ে বছরের পর বছর কোনও রকম নির্মাণ না করে ফেলে রেখে দিয়েছে৷ দেখা গিয়েছে ২০-২৫ বছর আগে নেওয়া বেশ কিছু জমিতে এখনও কোনও রকম নির্মাণ কাজ শুরু হয়নি৷

কলকাতাসহ রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় সেই সব জমিগুলি কোথায় কেমন অবস্থায় রয়েছে তার একটা সমীক্ষা করে দেখা হচ্ছে৷ অযথা সময় নষ্ট করে জমি ফেলে রেখেছেন যারা তাদের নোটিশ পাঠানো হবে বলে জানা গিয়েছে৷

কলকাতা, শিলিগুড়ি, দুর্গাপুর, আসানসোল সহ বেশ কিছু জায়গায় সরকারি দামে বহু জমি বন্টন করা হয়েছিল৷ ব্যবসা অথবা বাসস্থানের জন্য এই জমি ইজারায় দেওয়া হয়েছে৷ এই সব জমিগুলি এলআইজি, এমআইজি, এইচআইজি বিভিন্ন ক্যাটেগরিতে রয়েছে৷

সাধারণ নিয়ম অনুসারে এই জমি পাওয়ার পর ৩-৫ বছরের মধ্য সেখানে নির্মাণ কাজ করে ফেলা উচিত৷ কিন্তু অনেকেই তা করে না করে ফেলে রেখেছে৷ সেই সব জমির মালিকদের সরকার চিঠি দেওয়া হবে৷

প্রতীকী ছবি

প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই সল্টলেকে জমি নিয়ে ফেলে রাখা বেশ কিছু জমির মালিকের কাছে চিঠি পাঠান হয়েছিল৷ তারপরে যারা কোনও রকম চিঠির জবাব দেয়নি সরকারের পক্ষ থেকে তাদের জমি ফিরিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল৷ সেক্ষেত্রে কিছু জমিতে খুটি পুঁতে তা সরকারি জমি বলে বার্তাও দেওয়া হয়৷

এদিকে এবার জমি ফেলে রাখার ক্ষেত্রে জরিমানা দিয়ে নতুন করে ইজারা পুনর্নবিকরণ করতে হতে পারে৷ সেক্ষেত্রে অবশ্য ক্যাটেগরি অনুসারে জরিমানা নির্ধারণ হতে পারে বলে সূত্রের খবর৷ এলআইজি-র ক্ষেত্রে তুলনায় কম হবে জরিমানা তা ৫০ শতাংশ হতে পারেন ৷ অন্যদিকে এমআইজি এবং এইচআইজি ক্যাটেগরিতে জরিমানা তুলনায় বেশি হবে বলেই নবান্ন সূত্রে খবর৷

Advertisement
----
-----