কয়েক হাজার পাকিস্তানিকে আমেরিকায় বেচে দিয়েছেন মোশারফ

ইসলামাবাদ: সম্প্রতি পাকিস্তানের মাটিতে শুরু হয়েছে এক নতুন বিক্ষোভ, ‘পাশতুন তাহাফুজ মুভমেন্ট’। পাকিস্তান থেকে অস্বাভাবিকভাবে হারিয়ে যাওয়া বহু মানুষের খোঁজ চাইছে পাকিস্তানবাসী। আর সেই প্রসঙ্গেই উঠে এল এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট তথা একসময়ের পাকিস্তানের স্বৈরাচারী শাসক পারভেজ মোশারফ নাকি বিক্রি করে দিয়েছেন বহু পাকিস্তানিকে।

পাকিস্তানের ‘কমিশন অফ মিসিং পার্সনস’-এর প্রধান তথা অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি জাভেদ ইকবাল জানিয়েছেন, হাজার হাজার পাকিস্তানিকে বিদেশে বিক্রি করে দিয়েছিলেন পারভেজ মোশারফ। ডলারের বিনিময়ে অন্তত ৪০০০ পাকিস্তানিকে ওয়াশিংটনে বিক্রি করে দেন তিনি। এই ঘটনাকে “secret handover” বলে উল্লেখ করেছেন ইকবাল। পাকিস্তানের সংসদের মানবাধিকার সংক্রান্ত স্ট্যান্ডিং কমিটিকে এই তথ্য দিয়েছেন তিনি।

পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশ থেকে ও উপজাতি অধ্যুষিত এলাকা থেকে বহু মানুষের কোনও খোঁজ নেই। আর এই ইস্যু নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে দানা বাঁধছে ক্ষোভ। প্রশাসনের দিকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিচ্ছেন সাধারণ মানুষ। বালোচিস্তানেও এই ইস্যু ভয়ঙ্কর আকার নিয়েছে।

- Advertisement -

মোশারফের এই কাজকে ‘অবৈধ’ বলে উল্লেখ করে ঘটনার তদন্তের দাবি জানানো হয়েছে। জাভেদ ইকবাল প্রশ্ন তুলেছেন, ‘কিভাবে কোনও ব্যক্তি গোপনে দেশের মানুষকে বিক্রি করে দিতে পারেন?’ এমনকি মোশারফের শাসনকালে পাক সরকারের কেউ এটা নিয়ে প্রশ্নও তোলেনি। অথচ পাকিস্তানের আদালতে গত চার বছর ধরে চলছে নিখোঁজ ব্যক্তিদের নিয়ে মামলা।

আমিনা মাসুদ জানজুয়া নামে এক মহিলা তাঁর স্বামী সহ কয়েক হাজার মানুষের খোঁজ পেতে লড়ে যাচ্ছেন। তাঁর স্বামী রাওয়ালপিন্ডি থেকে নিখোঁজ হয়ে যায়। আজও তাঁর কোনও খোঁজ নেই। পাক সংসদ ও পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্টের বাইরে দাঁড়িয়েও প্রতিবাদ করেছেন। কোনও লাভ হয়নি। যদিও জাভেদ ইকবাল জানিয়েছেন, ৪০০০ পাকিস্তানিকে বিক্রি করা হয়েছে, তবে বালোচিস্তানে সেই সংখ্যাটা ঠিক কত, তা স্পষ্ট নয়।

Advertisement ---
-----