ঢাকা : বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টা করা ব্যক্তির কাছে ছিল খেলনা পিস্তল। তার গায়ে কোনও বিস্ফোরক ছিল না বলে সোমবার জানাল পুলিশ৷ চিটাগঙের দক্ষিণপূর্বের পুলিশ আধিকারিক কুসুম দেওয়াঁ সংবাদমাধ্য়ম কে জানান সন্দেহভাজনের কাছে খেলনার পিস্তল ছিল৷

তিনি জানিয়েছন তদন্তে জানা গিয়েছে এই সন্দেহভাজন মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল৷ তার সঙ্গে তার স্ত্রীয়ের সম্পর্ক ভাল ছিল না বলেও জানা গিয়েছে৷ এমনকি এই ঘটনা ঘটানোর আগে এই ব্যাক্তি স্ত্রীয়ের সঙ্গে বচসা করে আসে বলে পুলিশ কর্তারা জানিয়েছে৷ তবে এই ঘটনার তদন্ত এখনও চলছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্তা৷

রবিবার বাংলাদেশ দুবাইগামী এয়ারলায়েন্সের একটি বিমানের ককপিটে ঢোকার চেষ্টা করে এক ব্যাক্তি৷ শুধু তাই নয় এই সন্দেহ ভাজন বন্দুক বের করে বিমান উড়িয়ে দেওয়ার হিমকি দিয়েছিল বলে অভিযোগ৷ ঘটনার জেরে বিমানটির জরুরি অবতরণ করানো হয়৷ ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে এি বিমানটি দুবাই যাচ্ছিল বলে জানা যায়৷ তদন্তকারিরা জানিয়েছেন পাইলট কে এই সন্দেহভাজন জানিয়েছেন স্ত্রীর সঙ্গে ঝামেলা চলছে তার এবং সে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলতে চায়৷ নিরাপত্তা রক্ষীরা এই ব্যাক্তি কে গুলি করে৷ ঘটনায় তার মৃত্যু হয়৷

তবে পরে এই ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ কর্তারা জানতে পারেন বিমান অপহরনের হুমকি দেওয়ার জন্য যে পিস্তলটি ব্যবগহার করছেল সেটি খেলনার ছিল৷ তবে এই ঘটনার জেরে বিমানে যাত্রীদের সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠছে৷