উত্তরাখণ্ডে বন্ধ হল সব রকম ওয়াটার স্পোর্টস

দেরাদুন : অ্যাডভেঞ্চারপ্রেমীদের জন্য খারাপ খবর৷ উত্তরাখণ্ডে সব ধরণের জলের মধ্যে খেলা নিষিদ্ধ করে দিল উত্তরাখণ্ড হাইকোর্ট৷ অর্থাৎ এবার থেকে এই রাজ্যটির অন্যতম আকর্ষণ ওয়াটার স্পোর্টস বন্ধ হতে চলেছে৷ প্যারা গ্লাইডিং, রিভার রাফটিংয়ের মতো খেলাগুলি আর রাখা যাবে না৷ জানিয়ে দিল হাইকোর্ট৷

হাইকোর্টের এই নির্দেশ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে উত্তরাখণ্ড সরকারের পর্যটন দফতরকে। এমনকী আগামী দু’‌সপ্তাহের মধ্যে যাবতীয় ওয়াটার স্পোর্টসের ওপর স্বচ্ছ নীতি তৈরি করতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আদালতের পক্ষ থেকে। এই নিয়ে একটি খসড়া রিপোর্ট তৈরি করে আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

এদিন বিচারপতি রাজীব শর্মা এবং লোকপাল সিং বলেন, ‘‌ক্রীড়া আনন্দ করার জন্য। তার শেষ ধ্বংসাত্মক হতে দেওয়া যায় না। পর্যটন দফতরকে তা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। আমরা বিস্মিত যে রাজ্য সরকার নদীবক্ষকে প্রচার করছে পর্যটনের স্বার্থে। এতে পরিবেশ দূষিত হয়। নদীর বাস্তুতন্ত্রের ক্ষতি হয়। গঙ্গা নদী পরিষ্কার পরিচ্ছন্নও করা হচ্ছে না। তাতে নদীর দূষণও বাড়ছে। এই বিষয়ে রাজ্য পর্যটন দফতরকে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।’‌

- Advertisement -

আদালত জানিয়েছে খেলাধূলা আনন্দের বিষয়৷ তার করতে গিয়ে কোনও মানুষের মর্মান্তিক পরিণতি কোনও ভাবেই কাম্য নয়৷ কেবল মাত্র প্রশিক্ষিত পেশাদারদেরই রাফটিং করার অনুমতি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে আদালত৷ পাশাপাশি, আনন্দ পাওয়ার নামে পরিবেশ ধ্বংস করা হচ্ছে বলেও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে হাইকোর্ট৷
আদালতের নির্দেশ, প্রতি বছর নৌকাবিহার করতে গিয়ে মারা যান বহু পর্যটক। সেই মৃত্যু মিছিল বন্ধ করতেই এই সিদ্ধান্ত৷ এই নির্দেশের ফলে আপাতত ধাক্কা খেল পর্যটন দফতর বলে মনে করা হচ্ছে৷

ডিভিশন বেঞ্চ আরও জানিয়েছে যেভাবে নদীখাতে নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে ক্যাম্পিংয়ের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে, তা বন্ধ করতে হবে৷ বাণিজ্যিক ভাবে নদীর জল ব্যবহার করতে হলে তার জন্য সরকারকে উপযুক্ত চার্জ দিতে হবে বলেও নির্দেশ দিয়েছে আদালত৷ পাশাপাশি, আাদলত জানিয়ে দিয়েছে ওয়াটার স্পোর্টসের অনুমতির জন্য স্বচ্ছভাবে টেন্ডার ডাকতে হবে৷

Advertisement ---
---
-----