ঢাকা: বকরিদে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের খুশি করতে বিশেষ উদ্যোগ নিলেন প্রধানমন্ত্রী। কুরবানির জন্য তাদের উপহার দেওয়া হবে ১০ হাজার পশু।

কেবলমাত্র শরণার্থী শিবিরে বসবাস করা রোহিঙ্গাদের জন্য বকরিদে ১০ হাজার পশু উপহার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যার মধ্যে থাকছে নয় হাজার গরু। এই সকল মাংস বিতরণ করা হবে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া এক লক্ষ ৯৫ হাজার পরিবারের মধ্যে।

আরও পড়ুন- বেসরকারি ক্ষেত্রের ৬০০০ বিশেষজ্ঞের আবেদন ১০টি যুগ্মসচিব পদে

সমগ্র প্রক্রিয়া সুস্থ এবং স্বাভাবিক উপায়ে সম্পন্ন করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে একটি বিশেষ কমিটি গঠন করা হয়েছে। যার শীর্ষে রয়েছেন জেলা প্রশাসক মহম্মদ কামাল। প্রতিটি পরিবারে কমপক্ষে পাঁচ কেজি করে মাংস দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের কক্সবাজারে রয়েছে মায়ানমার থেকে বিতাড়িত হয়ে আসা রোহিঙ্গারা। ওই এলাকার টেকনাফ এবং উখিয়া এলাকায় ৩০টি আশ্রয় শিবিরে রয়েছে ১১ লক্ষেরও বেশি রোহিঙ্গা। তাদের জন্যেই কেনা ১০ হাজার পশু কেনা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মহম্মদ কামাল। প্রতিটি রোহিঙ্গা শিবিরে ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে গঠন করা হয়েছে পৃথক কমিটি।

এই বিষয়ে জেলা প্রশাসক মহম্মদ কামাল জানিয়েছেন যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এক লক্ষ ৯৫ হাজার পরিবারের ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গাদের জন্য ১০ হাজার পশু কেনা হচ্ছে। এর মধ্যে ৯০ শতাংশ গুরু। রোহিঙ্গারা যাতে ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত না হয় তাই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে তিনি আরও জানিয়েছেন যে রোহিঙ্গাদের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয়দের জন্যও কেনা হবে ৬০০ থেকে ৭০০টি পশু।

----
--