প্রতীকী ছবি৷

স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: পুজো এগিয়ে আসার পাশাপাশি জেলায় জেলায় ক্রমশ বেড়ে চলেছে অপরাধমূলক কাজের প্রবণতা৷ চুরি, ছিনতাইয়ের পাশাপাশি মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে বাইক চুরির ঘটনাও৷ তবে শুনলে অবাক হবেন, মাত্র ১৯ বছর বয়সেই মোটরবাইক পাচারচক্রের কুখ্যাত পাচারকারী হিসেবে পুলিশের কাছে নিজের পরিচয় করে নিয়েছে এক যুবক৷ অভিযুক্তের নাম ধনঞ্জয় ওরফে ধর্মেন্দ্র পাল৷

প্রসঙ্গত, বাইক চুরি করে পাচারের আগেই পুলিশের জালে ধরা পড়ল পাচারকারী৷ তবে অভিযুক্ত পুলিশের বেশ পরিচিত মুখ। মূলত ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে মোটরবাইক পাচারের অভিযোগে অভিযুক্ত এই পাচারকারী। জলপাইগুড়ি শহর লাগোয়া রাহুত বাগান এলাকার ধনঞ্জয় ওরফে ধর্মেন্দ্র পাল পুলিশের খাতায় মোস্ট ওয়ান্টেড আসামী। এর আগেও বেশ কয়েকবার চুরি ছিনতাইয়ের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে ফের এই কুখ্যাত পাচারকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

Advertisement

আরও পড়ুন: অশীতিপর মাকে মারধরের অভিযোগ ছেলের বিরুদ্ধে

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কোতোয়ালী থানায় পিসি পার্টির অফিসার শঙ্কর দাসের কাছে খবর আসে একটি চোরাই বাইক নিয়ে লাল মন্দির এলাকায় ঘাঁটি গেড়েছে ধনঞ্জয়। খবর পেয়েই পিসি পার্টি দল হানা দেয় ওই এলাকায়। ঘটনাস্থলে পৌঁছে চোরাই বাইক সহ ধনঞ্জয়কে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতের কাছ থেকে একটি মোটরবাইক বাজেয়াপ্ত করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

ধৃতকে জেরা করে জানা গিয়েছে, এনজেপি থানার ফুলবাড়ি এলাকা থেকে এই মোটরবাইক চুরি করে বাংলাদেশে পাচারের ছক কষেছিল সে। অভিযুক্ত ধনঞ্জয় এর আগেও বহুবার বাইক পাচার করতে গিয়ে পুলিশের জালে ধরা পড়েছে৷ এমনকি সীমান্তের বিএসএফ, এসএসবি ও পুলিশের তালিকাভুক্ত দাগী বাইক পাচারকারী নামে পরিচিত এই ধনঞ্জয়৷

আরও পড়ুন: শহরবাসীর প্রাণরক্ষায় ‘মৃত্যুবান’ ধরবে কলকাতা পুরসভা

যদিও এই প্রসঙ্গে জলপাইগুড়ি কোতয়ালী থানার আইসি বিশ্বাশ্রয় সরকার জানিয়েছেন, এই ঘটনায় আরও কেউ জড়িত রয়েছে কিনা সে বিষয় খোঁজখবর নেওয়া শুরু হয়েছে৷ পাশাপাশি ধৃতকে জেরা করে আরও তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ৷ সেই অনুযায়ী তদন্তও শুরু করা হয়েছে৷

----
--