জলসা থামাতে গিয়ে মার খেল পুলিশ!

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সল্টলেক করুণাময়ী পার্কে গভীর রাত পর্যন্ত চলছিল একটি কালীপুজোর জলসা৷ সেই জলসা থামাতে গিয়ে প্রহৃত হলেন দুই পুলিশ কর্মী। এই ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷ ধৃতদের নাম সন্দীপ ঘোষ, সুপ্রতীক ঘোষ, আকাশ সোনি, সুমিত কুঠাই, শেখর জালান৷

শারদোৎসবের আগে পুজো কমিটিগুলির সঙ্গে পুলিশের বৈঠকে বারবার সাবধান করা হয়েছিল, গভীর রাত পর্যন্ত জলসা করা যাবে না৷ এমনকি পুজোতে ডিজে বা তারস্বরে মাইক বাজানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল৷

আরও পড়ুন: হরমনপ্রীতের বিধ্বংসী শতরান, বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে রানের চূড়ায় ভারত

সেই নির্দেশকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে বৃহস্পতিবার সল্ট লেকের করুণাময়ী পার্কে গভীর রাত পর্যন্ত চলছিল জলসা৷ বাজানো হচ্ছিল তারস্বরে মাইক৷ খবর পেয়ে সেখানে যান বিধাননগর পূর্ব থানার এএসআই অমল কাঁড়ার ও এক কনস্টেবল।

তারা জলসা বন্ধ করতে বলেন৷ তাদের কথা তো পুজো উদ্যোক্তারা শুনলেনই না উল্টে পুলিশের উপর চড়াও হয় কয়েকজন৷ এই ঘটনায় এএসআই ও কনস্টেবল আহত হন৷

আরও পড়ুন: আনন্দপুরে প্লাস্টিক কারখানায় বিধ্বংসী আগুন

পুলিশ সূত্রে খবর,শুধু সল্টলেক করুণাময়ী পার্ক নয়, এবার বিধাননগর কমিশনারেট এলাকায় পুজোর প্রতিটি জলসার ওপর ছিল পুলিশের নজরদারি৷ ঘড়ির কাটায় রাত বারোটা বাজার আগে থেকেই পুজো উদ্যোক্তাদের নোটিশ করা হয়েছে৷

রাত বারোটার পর কোনভাবেই অনুষ্ঠান করা যাবে না৷ যদিও কিছু জায়গায় রাত বারোটার পরও তারস্বরে মাইক বাজিয়ে অনুষ্ঠান চলেছে৷

আরও পড়ুন: হাওড়া-বর্ধমান শাখায় ট্রেন চলাচল বিপর্যস্ত

-------
----