চালকদের গোলাপ ও চকলেট দিয়ে দুর্ঘটনা রুখছে পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার, রায়গঞ্জ: রাজ্যে পথ দুর্ঘটনা কমাতে মমতার সরকার ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ’ প্রকল্প চালু করেছিল৷ কিন্তু একপ্রকার পুলিশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বাইক আরোহীরা বিনা হেলমেটে রমরমিয়ে বাইক চালিয়ে যাচ্ছে৷

স্পট ফাইন থেকে শুরু করে আটক করে রাখা৷ শত প্রচেস্টা করেও কমানো যায়নি বিনা হেলমেটে বাইক চালানো৷ তাই বাধ্য হয়ে পুলিশ নয়া পন্থা চালু করল৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের জোর কদমে কাজ চলছে গারুলিয়ায়

কোনও প্রকার কেস না দিয়ে গান্ধীগিরি মাধ্যমে বিনা হেলমেটের বাইক আরোহীদের সচেতন করতে রাস্তায় নামলো উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ। শুক্রবার শহরের সুকান্ত মোড় এলাকায় বিনা হেলমেট বাইক চালকদের দাঁড় করিয়ে তাদের হাতে গোলাপ ফুল ও চকলেট হাতে দেয়৷

তারপর তাদের কাছে হাত জোর করে অনুরোধ করেন কর্মরত পুলিশ কর্মীরা। আর যারা হেলমেট থাকা সত্ত্বেও হেলমেট পড়েনি তাদেরও গোলাপ ফুল, চকলেট দেয়৷ শুধু এটাই নয় তাদের আবার বাইকে থাকা হেলমেট চালকদের মাথায় পড়িয়ে দেন পুলিশ কর্মীরা।

আরও পড়ুন: সাউথ সিটির সামনে সাপ দেখিয়ে লুট, গ্রেফতার ৪

তাদের বোঝান হেলমেট পড়ার কি উপকারিতা। তাদের পুলিশ কর্মীরা বলেন, কারণ তার অপেক্ষায় কেউ বাড়িতে থাকে৷ তাই অবহেলা করবেন না৷ হেলমেট পড়ে প্রিয়জনদের ভালো বাসুন।

এদিনের পুলিশের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ। এদিনের কর্মসূচিতে ছিলেন কালিয়াগঞ্জ ট্রাফিক ওসি দিনাসং শেরপা, প্রতাপ মিশ্র ও সিভিক ভলান্টিয়ারেরা।

এদিন ট্রাফিক ওসি দিনাসং শেরপা বলেন, জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমারের নির্দেশে বিনা হেলমেট বাইক চালকদের সচেতন করতে৷ তাই কোন প্রকার কেস না দিয়ে গান্ধীগিরির মাধ্যমে গোলাপ ফুল ও চকলেট প্রদান করা হচ্ছে। যাতে তারা হেলমেট পড়ে বাইক চালায়। কারণ তাদের জন্য তাদের পরিবার অপেক্ষায় থাকে।

আরও পড়ুন: বাঁকুড়ায় সাংগঠনিক কনভেনশনের উদ্বোধন