লড়ছে বাংলাদেশ: ঢাকার রাজপথে ছাত্র-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধ

ঢাকা: একটা আন্দোলনের রাজপথ৷ সেই পথেই একশো ছাত্র ছুটছে৷ কয়েকদিনের চলা ছাত্র আন্দোলন শনিবার বেশ উত্তপ্ত রূপ নেয়৷ পড়ুয়াদের লক্ষ্য করে ছোড়া হয় টিয়ার গ্যাস৷ পুলিশের উপর পাথর ছোড়ে পড়ুয়া বলে অভিযোগ৷ সবমিলিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়৷

আরও পড়ুন- কোদাল, ঝাঁটা হাতে সাফাই অভিযানে মমতার এই মন্ত্রী

ঢাকার বাস,অটো সমস্ত কিছু স্তব্ধ৷ বাস মালিক ও কর্মীরা বাস চালাতেও চাইছেন না৷ প্রত্যেকেই রাস্তায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন৷ দাবি, বাসগুলো আটকে চলছে লুঠ৷ কারা এই লুঠ চালাচ্ছে, তা জানা না গেলেও, ছাত্রদের সঙ্গে বহিরাগতরাও যোগ দিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে৷

- Advertisement DFP -

আরও পড়ুন- বর্ষার শুরুতেই মশার বাড়-বাড়ন্তে ডেঙ্গুর প্রকোপ রাজধানীতে

ছাত্র-পুলিশ সংঘর্ষে কমপক্ষে ২৫ জন আহত৷ এরমধ্যে ২ জন অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের সাংবাদিক৷ আওয়ামী লিগ জানাচ্ছে, হামলবাজরাই স্কুল ইউনিফর্ম পড়ে তাণ্ডব চালাচ্ছে ঢাকার রাস্তায়৷ তাদের শক্ত হাতে দমন করা হবে৷ পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ছুড়তেও দেখা যাচ্ছে ইউনিফর্ম পরা কয়েকজনকে৷

গত ২৯ জুলাই রবিবার ঢাকার কুর্মিটোলায় বেসরকারি সংস্থা জাবালে নূর পরিবহনের বাস ধাক্কা মারে দুই পড়ুয়াকে৷ আহত হন কয়েকজন৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম রাজীবের৷ এরা দুজনেই শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের পড়ুয়া৷ এর পরই পথ নিরাপত্তার দাবিতে ছড়াতে শুরু করেছে আন্দোলন৷ সেটা ক্রমশ এত বড় আকার নেয় যে পুরো বাংলাদেশেই ছড়িয়ে পড়ে৷

আরও পড়ুন- মশানজোড়ে বিশ্ব বাংলা লোগোর উপর সাঁটানো হল ঝাড়খণ্ডের লোগাে!

এদিকে বাস চালকদের নিরাপত্তার দাবিতে বাস সিন্ডিকেট অঘোষিত ধর্মঘট শুরু করায় ঢাকার যানচলাচল স্তব্ধ৷ একইরকম অবস্থা দেশের অন্যান্য এলাকায়৷ আন্দোলনরত পড়ুয়ারা শনিবার রাজপথে নেমে ট্রাফিক পুলিশের ভূমিকায় বিভিন্ন গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা করছে৷ অভিনব এই উদ্যোগে রোজকার যানজটে নাকাল হওয়া ঢাকাবাসীর বিরাট অংশের সমর্থন রয়েছে৷ পাশাপাশি বাড়ছে ক্ষোভ৷ কারণ কর্মস্থলে পৌঁছতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন যাত্রীরা৷

Advertisement
----
-----