সোয়েতা ভট্টাচার্য ,কলকাতা: পুরানো ও রক্ষণাবেক্ষনহীন যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ ৷অনেক সময় দেখা গিয়েছে গাড়ির রক্ষনাবেক্ষন ঠিক মত না হওয়ার ফলে দুর্ঘটনা ঘটেছে ৷ অনেক সময় এই গাফিলতির জেরে বহু প্রাণ হারিয়েছে৷ চালকদের বেপরোয়া গাড়িচালনা আর সহ্য করতে রাজি নয় কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ৷

সেই কারণেই যেসব রক্ষনাবেক্ষনহীন ও পুরানো গাড়ি এখনও রাস্তা ছুটে বেড়াচ্ছে সেই গাড়িগুলির ধড়পাকড়ের গতি বাড়িয়েছে কলকাতা পুলিশ ৷ শহরবাসীর সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে এই পদক্ষেপ নিয়েছেন লালবাজার কর্তারা ৷ এক ট্রাফিক পুলিশ জানান , এই সব গাড়িগুলোর বিভিন্ন মোটর পার্টস, বিশেষ করে ব্রেক আর টায়ার ঠীক না থাকার কারণে এই গাড়িগুলি বিপদজনক এবং প্রায়শই দুর্ঘটনার কবলে পরে ৷ এবার থেকে পুরানো গাড়ির ব্রেক, আয়না, রিসোল টায়ার ব্যাবহার হচ্ছে কি না তা খতিয়ে দেখতে বিশেষ অভিযান শুরু করেছে কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ৷

Advertisement

অভিযানের প্রথম দিনই পাঁচটি গাড়ি আটক করেছে পুলিশ ৷ সেই সব গাড়িগুলির বাইরের কাঠামো, যাত্রীদের বসার জায়গা ,টায়ারের অবস্থা ,রিয়ার ভিউ মিরর কিছুই ঠিক ছিল না বলে জানাচ্ছেন লালবাজার কর্তারা ৷ পুরানো ও রক্ষণাবেক্ষনহীন যানবাহনের মধ্য সব থেকে বেশি সংখ্যা রযেছে বাসের ৷ রাস্তায় আর চলার মতো অবস্থায় নেই এমন পাঁচটি বাস কে আটক করা হয়েছে ৷ আরো একাধিক গাড়ি কে চিন্হিত করা হয়েছে ৷ জোরদার নজরদারিও চালাচ্ছে কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ ৷

ডিসি ট্রাফিক সুমিত কুমার জানান ,”কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ শহরবাসীদের আরও সুরক্ষিত এবং নিরাপদ করে তুলতে চাই ৷সেই উদ্দেশ্যেই পথে যেসব পুরোনো ও রক্ষনাবেক্ষনহীন যানবাহন চলছে সেইগুলো কে রুখতে আমরা অভিযান শুরু করেছি ৷ একদিকে এই সব গাড়ির জেরে শহরে দুর্ঘটনার হার বারে এবং এই যানবাহনগুলি যখন তখন খারাপ হয়ে যাওয়ার ফলে রাস্তায় অকারনে যানজটের সৃষ্টি হয় ৷ যার ফল ভোগ করতে হয় সাধারন মানুষ কে” ৷

তিনি আরও বলেন , ”এই সব গাড়ির ধরপাকড়ের পাশাপাশী কলকাতা ট্রফিক পুলিশ তদন্তও শুরু করেছে ”৷ কী ভাবে এই গাড়ীগুলি ফিটনেস সার্টিফিকেট পেল সেই বিষয়ও তদন্ত করছে পুলিশ ৷ ডি সি ট্রাফিক জানান ,” এই অভিযানে সরকারি বাসও রেহাই পাবেনা ৷ এই অভিযানের বিষয় পরিবহণ দফতরের সঙ্গেও আলোচনা করা হয়েছে ৷ এই আলোচনায় পরিবহণ দফতর এই যানবাহনের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে ”৷

কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের এক অফিসার বলেন এই ধরনের গাড়ি আগামী দিনে যাতে আর ছাড়পত্র না পায় সেই দিকেও নজর রাখছেন তারা ৷ পথ দুর্ঘটনার হার কমাতে কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের এই দাওয়াই কতটা ফলপ্রশু হয় সেই দিকেই নজর শহরবাসির ৷

----
--