প্রতিটা নির্বাচন দেশে শুধু বিভেদ তৈরি করেছে: ফারুক আবদুল্লা

নয়াদিল্লি: সংঘবন্ধ করার বদলে নির্বাচন দেশকে খণ্ডিত করে গিয়েছে৷ সেটা শুরু হয়েছে স্বাধীনতার পর থেকেই৷ মন্তব্য জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লার৷ পাশাপাশি স্বার্থপর ও অর্থপিপাসু রাজনীতিকদের নিশানা করেন তিনি৷ সেই সব রাজনীতিকদের উদ্দেশে তোপ দেগেও রাজনীতি খারাপ নয় বলে জানান৷ তিনি বলেন, ‘‘রাজনীতিকরা খারাপ হতে পারে৷ কিন্তু রাজনীতি খারাপ নয়৷’’

আরও পড়ুন: বিজেপির রামের জিভ কাটলেই পুরষ্কার পাঁচ লাখ: কংগ্রেস নেতা

দিল্লির একটি অনুষ্ঠানে এসে ন্যাশনাল কনফারেন্সের সভাপতি ফারুক আবদুল্লা বলেন, ‘‘স্বাধীনতার পর থেকে দেশে অনেক নির্বাচন হয়েছে৷ সব নির্বাচনই দেশকে সংঘবন্ধ করার বদলে বিভেদ ও খণ্ডিত করে গিয়েছে৷ আমরা মন্দির মসজিদ নিয়ে লড়াই করি৷ কিন্তু মানুষের কষ্ট লাঘব করার জন্য লড়াই করি না৷ আমরা মিথ্যা কথা বলি৷ কারণ সৎ থাকলে ভয় পাই হেরে যাওয়ার৷ কিন্তু এই ধারণা ভুল৷’’

- Advertisement -

এই অনুষ্ঠানে রাজনীতিকদের একাংশকেও নিশানা করেন জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী৷ মেনে নেন মানুষের সেবার জন্য রাজনীতিতে কেউ আসেন না৷ বেশিরভাগ আসে শুধু টাকা তৈরির লোভে৷ তিনি বলেন, ‘‘রাজনীতি খারাপ নয়৷ কিন্তু রাজনীতিবিদরা খারাপ হতে পারে৷ জনসেবার জন্য আমরা রাজনীতিতে যোগ দিয়েছিলাম৷ কিন্তু অনেকে এসেছে টাকার লোভে৷ কিন্তু ইশ্বর মন্দির, মসজিদ বা গুরুদ্বারাতে থাকে না৷ মানুষের মধ্যে থাকে৷ জনসেবার মধ্যে দিয়েই ইশ্বর সেবা হয়৷’’

আরও পড়ুন: বেহাল রাস্তায় আসে না অ্যম্বুলেন্স, কাঁধে চড়াই হাসপাতালে গর্ভবতীরা

পরে একটি অনুষ্ঠানে এসে গান্ধী ও নেহরু আমলের গণতন্ত্রের কথা স্মরণ করেন৷ বলেন, ‘‘যে গণতন্ত্রের কথা গান্ধী ও নেহরু বলে গিয়েছিলেন সেই গণতন্ত্র আর নেই৷ দেশ এখন কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে৷’’ একটি নির্দিষ্ট ধর্মকে লক্ষ্য করে গণপিটুনির প্রবল সমালোচনা করেন৷ জানান, এখনই সময় জেগে ওঠার৷ না হলে দেশটা টুকরো টুকরো হয়ে যাবে৷

Advertisement ---
---
-----