ফাস্টফুডের পাশাপাশি মেনকোর্সেও পটেটো চিপস প্রায়ই থাকে। গত শতাব্দীর ৭০ এর দশকের পর থেকে পটেটো চিপস তথা পটেটো ক্র্যাকার্স এর বিস্তার চোখে পড়ার মতো। কিন্তু এই প্রিয় খাবারের মাঝে যে লুকিয়ে আছে মারাত্মক প্রাণ নাশক ব্যাধি তা কেউ কখনো চিন্তা করেছেন কি ?

বাচ্চারা তো আছেই, আমরা বড়রাও কাজের ফাঁকে, টি  ব্রেকে বিস্কুট, রুটির  বদলে টক-ঝাল-নোনতা এই কুড়কুড়ে চিপসেরই ভক্ত ৷অথচ এই মজার স্ন্যাক্স বহন করছে ক্যান্সার হওয়ার জন্য দায়ী উপাদান, যার নাম এক্রাইলামাইড বা এক্রিলামাইড(Acryl amide)।

সম্প্রতি সুইডিস ন্যাশনাল ফুড অথোরিটি এই বাস্তব সত্যটা আবিষ্কার করেছে। তাদের গবেষণায় বলা হয়েছে, আলু এক প্রকার উচ্চ শ্বেতসার সমৃদ্ধ সবজি বা শস্য। এই আলুর অতি পাতলা করা স্লাইস অতিরিক্ত লবন, ছাঁকা তেলে অনেকক্ষন ভাজাসহ সংরক্ষন করতে উচ্চতাপ ব্যবহার করতে হয়, ফলে এর খাদ্যগুণ অনেকাংশে শুধু নষ্টই হয় তা নয়, এক্রাইলামাইড জাতীয় জটিল জীবননাশক যৌগ উৎপাদনে এটি বিশেষ ভুমিকা রাখে।

এক্রাইলামাইড খুব দ্রুতগতিতে  মানবদেহে ক্যান্সারের বাসা বাঁধতে সহযোগিতা করে। তবে পুষ্টিবিদদের মতে, নিয়ন্ত্রিত তাপমাত্রায় খাদ্যগুনাগুন বজায় রেখে চিপস তৈরি করা সম্ভব। প্রস্তুতকারকদের সদিচ্ছা আর সুসংহত খাদ্য ব্যবস্থাপনা কমিটির নিয়ন্ত্রনে তা বাস্তবে রূপ দেয়া সম্ভব।

----
--